দিনাজপুর-১ আসনে চলছে দ্বিমুখী লড়াই, জনসমর্থনে এগিয়ে মাওলানা মোহাম্মদ হানিফ

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দিনাজপুর ৬টি আসনে সবচেয়ে বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে দিনাজপুর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনে। এই আসনে বিভিন্ন দলের ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এই আসনে মোট ভোটার সংখ্যা প্রায় ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৪৩ জন। পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৭২ হাজার ৫৫৫৪ জন। নারী ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৭১ হাজার ৪৯৯ জন।

দিনাজপুর-১ আসনে প্রতীকপ্রাপ্ত প্রার্থীরা হলেন- মাওলানা মোহাম্মদ হানিফ বিএনপি (ধানের শীষ), মনোরঞ্জন শীল গোপাল আওয়ামীলীগ (নৌকা), শাহিনুর ইসলাম (দিনাজপুর) জাতীয় পার্টি (লাঙল), আশরাফুল আলম ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশে (হাতপাখা), আরিফুল ইসলাম (দিনাজপুর), জাতীয় গণতান্ত্রিক পাটি-জাগপা (হুক্কা), সৈয়দ মনজুর উল করিম, মুসলিম লীগ-বিএমএল (হারিকেন)

এদের মধ্যে বিভিন্ন অবস্থানগত ও রাজনৈতিক কারণে দুই প্রার্থী ভোটে প্রভাব ফেলবেন। তারা হলেন, বিএনপির মনোনীত প্রার্থী মাওলানা মোহাম্মদ হানিফ বিএনপি (ধানের শীষ), মনোরঞ্জন শীল গোপাল আওয়ামীলীগ (নৌকা)।
এই আসনটিতে বীরগঞ্জ পৌরসভার দুই বারের নির্বাচিত মেয়র মাওলানা মোহাম্মদ হানিফ বিএনপি (ধানের শীষ), সততা ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতির কারণে এলাকায় মুসলিম, হিন্দুসহ সকল ধর্মের জনগনের কাছে তিনি বেশ জনপ্রিয়। তার নিজ উপজেলা বীরগঞ্জ পাশাপাশি কাহারোল উপজেলা বিভিন্ন গ্রামে তার অনুসারি রয়েছে। অন্যদিকে দুইবারের নির্বাচিত এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল আওয়ামীলীগ (নৌকা) তিনিও বীরগঞ্জে তেমন জনপ্রিয় না থাকলেও তার নিজের এলাকায় কিছুটা প্রভাব রয়েছে।

বিএনপি’র নেতা কর্মীরা জানান, প্রতিদিন প্রায় আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার অভিযান চালাচ্ছেন, এপর্যন্ত প্রায় দু’শতাধিক নেতা কর্মীকে গ্রেফতারসহ কাহারোল এলাকায় প্রচারনার মাইক ভাংচুর, বীরগঞ্জ এলাকায় পোষ্টার না চিড়ে ফেললেও কাহারোল উপজেলায় বেশ কিছু এলাকায় বিরোধী পক্ষের নেতাকর্মীরা আমাদের পোস্টার চিড়ে ফেলা হয়েছে বলে জনান। এব্যাপারে আমরা ডিসি মহোদয়কে অভিযোগ জানিয়েছি তিনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন।তারা বলেন আমরা এর জবাব ৩০ ডিসেম্বর ভোটের মাধ্যমে দিব।ইনশাআল্লাহ।

এছাড়াও বিভিন্ন ইসলামী সমমনা দলের প্রার্থীসহ ৪ জন দিনাজপুর-১ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। ফলে এখানে তুমুল ভোট যুদ্ধ দেখছেন বিশ্লেষকরা। সব জটিল সমীকরণ পাশ কাটিয়ে আগামী ৩০ ডিসেম্বর জনগণের ব্যালটই বলে দেবে কে হবে এই আসনের অভিভাবক।

Comments

comments