হে ভারত, পাকিস্তান তোমাদের শত্রু নয় : ওয়াসিম

কাশ্মীর নিয়ে এখন মুখোমুখি যুদ্ধাবস্থানে দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত এবং পাকিস্তান। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলায় ভারতীয় সিআরপিএফের ৪৫ সদস্যের মৃত্যুর জের ধরে ১৩দিনের মাথায় নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে পাকিস্তানে হামলা চালিয়েছে ভারতের যুদ্ধ বিমান। ভারতের দাবি পাকিস্তানের ৩০০জন জঙ্গীকে শেষ করে দিয়েছে তারা। পাকিস্তান বলছে, তাদের ধাওয়া খেয়ে পালিয়েছে ভারতীয় বিমানগুলো।

জবাবে পরদিনই ভারতের যুদ্ধবিমানকে গুলি করে নামায় পাকিস্তান এবং ভারতীয় বিমান বাহিনীর কর্মকর্তাকে আটক করে ভিডিও ছেড়ে দেয়া হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। শেষ পর্যন্ত জাতির সামনে ভাষণ দিতে এসে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে আহ্বান জানিয়েছেন আলোচনার টেবিলে বসে সমাধানের জন্য। যুদ্ধ লাগলে নিয়ন্ত্রণ কারো হাতে থাকবে না উল্লেখ করে ইমরান খান বললেন, হিটলারও জানতেন না যুদ্ধ এত দীর্ঘস্থায়ী হবে।

দেশের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যখন এই বক্তব্য নিয়ে তার জাতির সামনে নয় শুধু, বিশ্ববাসীর সামনে হাজির হলেন, তখন তারই সাবেক সাবেক সতীর্থ ওয়াসিম আকরাম সোশ্যাল মিডিয়ায় এসে হাজির হলেন ভিন্ন এক শান্তির বার্তা নিয়ে। ভারতের কাছে তিনি বার্তা তুলে ধরলেন, ‘ভারাক্রান্ত হৃদয়ে আমি তোমাদের আবেদন করছি, হে ভারত পাকিস্তান তোমাদের শত্রু নয়। তোমাদের শত্রু আমাদেরও শত্রু। আর কত রক্তক্ষয় হলে আমরা বুঝতে পারবো, দু’পক্ষকেই একই সঙ্গে একই যুদ্ধক্ষেত্রে লড়াই করা উচিৎ? যুদ্ধে জঙ্গিদের পরাজিত করতে হলে দুই ভাইকে একসঙ্গে লড়াইয়ে নামতে হবে।’

এরপর তিনি টুইটে হ্যাশট্যাগ লেখেন টুগেদারউইউইন হ্যাশট্যাগ নোটুওয়ার। ওয়াসিম আকরামের এই টুইটে ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া দুই’ই হয়েছে। তবে অধিকাংশই স্বাগত জানিয়েছেন তাকে। প্রায় সাত হাজার রিটুইট হয়েছে তার এই টুইটে। আর পছন্দ করেছেন প্রায় ৪০ হাজার টুইটার ব্যবহারকারী। বলাই বাহূল্য, এই ব্যবহারকারীদের অধিকাংশই ভারত এবং পাকিস্তানের।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান শান্তির বার্তা দেওয়ার পর এই টুইট করেন ওয়াসিম আকরাম। ১৯৯২ বিশ্বকাপ জয়ী ইমরান খানের দলের অন্যতম সৈনিক ছিলেন ওয়াসিম। দেশের কঠিন পরিস্থিতিতে আবারও অধিনায়কের পাশে দাঁড়ালেন তিনি। যুদ্ধ নয়, বরং দুই প্রতিবেশী দেশকেই সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামিল হতে বললেন ওয়াসিম।

যদিও ইমরান সরাসরি শান্তি আহ্বান করেছেন। ওয়াসিম আকরাম একটু এগিয়ে গিয়ে বললেন, দুই দেশকেই এক সঙ্গে মাঠে নামতে হবে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে। এই লড়াইয়ে দু’দেশের শত্রুই এক। সেই শত্রু নির্মুল না করলে কারো পক্ষেই শান্তি আসবে না।

Comments

comments