মহেশখালীতে পাঁচ মাদরাসা ছাত্রীসহ ৮ জন অপহরণ!

কক্সবাজারের মহেশখালী দ্বীপে মঙ্গলবার রাতে ৫ জন দাখিল পরীক্ষার্থীসহ ৮ জন ছাত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে স্থানীয়দের সহায়তায় ৭ জনকে উদ্ধার করা গেলেও একজন ছাত্রী এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

মহেশখালী থানার পুলিশ জানিয়েছে, দ্বীপের ছোট মহেশখালী এলাকা থেকে বন্দুকধারী একদল দুর্বৃত্ত কর্তৃক অপহরণের শিকার হয় মাদরাসার ছাত্রীরা। এ প্রতিবেদন লেখাকালীন সময়ে পর্যন্ত একজন মাদরাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করা যায়নি। পুলিশ তাদের উদ্ধারের চেষ্টা করছে।

দ্বীপের ছোট মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুল মান্নান জানান, দ্বীপের শাপলাপুর আলিম মাদরাসার ৫ দাখিল পরীক্ষার্থী পৌরসভার বানিয়ার দোকান এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে পরীক্ষা দিচ্ছে। ইতিমধ্যে ৫ জনের মধ্যে কলি আক্তার নামে জনৈক ছাত্রীর সঙ্গে ছোট মহেশখালীর আজম নামে এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

প্রেমের সম্পর্কের কাএণই প্রেমিকের অনুরোধে দাওয়াত খেতে ৬ পরীক্ষার্থী ও বাসার মালিক পারভিন ও তার শিশুপুত্রসহ ৮ জন রাত ৮টার দিকে ছোট মহেশখালী আসাদতলী সংলগ্ন এলাকায় যায়। কথিত প্রেমিকসহ কয়েকজন যুবক তাদের পাহাড়ের দিকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে কয়েকজন ছাত্রী চিৎকার করে।
চিৎকারের শব্দ পেয়ে স্থানীয় লোকজন চেয়ারম্যানের সহায়তায় ৫ ছাত্রী, এক শিশুসহ ৭ জনকে উদ্ধার করলেও এক ছাত্রীকে পাহাড়ের দিকে নিয়ে যায় অপহরণকারীরা।

মহেশখালী থানার ওসি তদন্ত সফিকুল আলম জানান, দ্বীপের শাপলাপুরের ৫ ছাত্রী বানিয়ার দোকান এলাকায় পারভিনের বাড়িতে ভাড়া থেকে পরীক্ষা দিচ্ছে। তৎমধ্যে কলি নামে এক ছাত্রীর সঙ্গে আজম নামে এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে।

Comments

comments