পুলিশী হয়রানি, বাড়তি টাকা ছাড়া মিলছে না পাসপোর্ট

বগুড়ায় বাড়তি টাকা ছাড়া মিলছে না পাসপোর্ট। পুলিশ ভেরিফিকেশনের নামে এ টাকা নেয়ার অভিযোগ পাসপোর্ট প্রত্যাশীদের। টাকা না দিলে পুলিশ নানা হয়রানি এবং দেরি করছে বলে দাবি অনেকের।

অল্প টাকা দিতে পীড়াপীড়ি করছিলেন বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ পৌরসভার গরীবপুর গ্রামের হতদরিদ্র কৃষকের ছেলে সাকিব প্রামানিক। কিন্তু পুলিশ কোনভাবেই এক হাজার টাকা ঘুষ নিতে রাজি নন। পুলিশের দাবি ৩ হাজার টাকা। প্রমাণসহ বিকাশে কে কত টাকা দিয়েছেন তাও দেখান তিনি। এরকম ঘটনা সব সময়।

তবে সঠিক সময়ে যাচাই-বাছাইয়ের কাজ শেষ না হওয়ায় গ্রাহকদের এমন ভোগান্তি বলে জানান বগুড়া সহকারি পরিচালক আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস মোঃ শরিফুল ইসলাম। আর ঘুষের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানের কথা বলছেন বগুড়া পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা।

সঠিক সময় পাসপোর্ট না দিতে পারার কারণ হিসেবে পুলিশ ভেরিফিকেশন রিপোর্ট নির্ধারিত সময়ে না দেওয়াকে দায়ী করলেন বগুড়া সহকারি পরিচালক আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস মোঃ শরিফুল ইসলাম।

পুলিশ ভেরিফিকেশনে পুলিশের ঘুষ নিয়ে কঠোর অবস্থানে পুলিশ। ইতোমধ্যেই অভিযুক্ত পুলিশকে শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে বলে জানালেন বগুড়া পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা।

জেলা পাসপোর্ট অফিসের তথ্য মতে, গড়ে প্রতিদিন ১‘শ ৫০ জন মানুষ পাসপোর্ট পেতে আবেদন করেন। জরুরি পাসপোর্ট ১১দিন ও সাধারণ পাসপোর্ট পেতে ২১ দিন সময় লাগার কথা থাকলেও কেউই সময়ের মধ্যে পাসপোর্ট পাচ্ছেন না।

Comments

comments