স্কুলের সামনে সিগারেট বিক্রির অপরাধে ২ বিক্রেতার দণ্ড

বরিশাল জিলা স্কুলের সামনে সিগারেট ও তামাকজাত দ্রব্য বিক্রির অপরাধে দুই বিক্রেতাকে সাত দিন করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোয়াজ্জেম হক চৌধুরী।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নগরের পুলিশ লাইন্স এলাকার বাসিন্দা ধলু তালুকদারের ছেলে বাদল তালুকদার (৩০) ও ব্রাউন কম্পাউন্ড এলাকার বাসিন্দা মৃত আবুল কাশেম শিকদারের ছেলে মো. রফিক শিকদার (৩২)। এরা দুজনেই বরিশাল জিলা স্কুলের সামনে চা-পান ও সিগারেট বিক্রি করতেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোয়াজ্জেম হক চৌধুরী বাংলানিউজকে জানান, নগরের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের সামনের দোকান গুলোতে সিগারেট ও তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি করা হচ্ছে।

এসব দোকানগুলোতে স্থানীয় থানার পুলিশ একাধিকবার সিগারেটসহ তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি, প্রদর্শন ও মজুদ না করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু নির্দেশনা উপেক্ষা করে স্কুল-কলেজের সামনের দোকান গুলোতে প্রকাশ্যেই তামাকজাত দ্রব্য বেচাকেনা করছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে দুপুরে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের সহযোগিতায় বরিশাল সদর রোডের সার্কিট হাউস সংলগ্ন জেলা স্কুলের সামনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় বাদল ও রফিক নামে দুই বিক্রেতাকে সাতদিন করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

স্কুল-কলেজের সামনে তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি ও ইভটিজিং বন্ধে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোজাম্মেল।

অভিযানকালে আরও উপস্থিত ছিলেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (কোতোয়ালি) মো. আব্দুল হালিমসহ পুলিশ সদস্যরা।

Comments

comments