‘সরকারের সহযোগিতায় ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে’

চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধিতে তীব্র ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সিপিবি’র নেতৃবৃন্দ। তারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের অর্থনীতির বিপরীতে দেশ এখন চলছে মুক্তবাজার অর্থনীতিতে।

জনসমর্থনের তোয়াক্কা না করে ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে লুটেরা ধনিক শ্রেণিকে সুবিধা পাইয়ে দিতে সরকার নানা গণবিরোধী তৎপরতা চালাচ্ছে।

সরকারের সক্রিয় সহযোগিতায় অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে। ফলে বিভিন্ন সময়ে নানা অজুহাত দেখিয়ে জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি করা হয়ে থাকে। সরকারের দুর্বল অবস্থার সুযোগ নিয়ে এবার দাম বৃদ্ধির ক্ষেত্রে কোনো অজুহাতও দেখানো হয়নি।

সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন,কোনো কারণ ছাড়াই হঠাৎ করে চালের দাম কেজিপ্রতি ৪-৫ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। চালের পাশাপাশি পেঁয়াজ, রসুনসহ অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসেরও দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে জনজীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।

নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমানো এবং জনগণের স্বার্থে বাজার নিয়ন্ত্রণের জন্য মজুদদার-মুনাফাখোরদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। একইসঙ্গে নেতৃবৃন্দ রেশনিং ও গণবণ্টনব্যবস্থা চালুর দাবি জানান। নেতৃবৃন্দ সরকারের গণবিরোধী তৎপরতার বিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।

এদিকে চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে সিপিবি’র উদ্যোগে কাল সোমবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হবে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচি হিসেবে আগামী ২১ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

Comments

comments