সময়ানুবর্তিতায় এগিয়ে এডভোকেট জুবায়ের

বুধবার সকাল ১১টায় নগরীর রিকাবী বাজারস্থ মোহাম্মদ আলী জিমনেসিয়ামে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ৭ মেয়র প্রার্থী নিয়ে জনগণের মুখোমুখি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলো সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন।

অনুষ্ঠানটি সকাল ১১টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও কামরান, আরিফসহ বেশ কয়েকজন মেয়র প্রার্থী দেরীতে উপস্থিত হওয়ায় অনুষ্ঠান শুরু হতে বিলম্ব হয়। তবে সময় মতোই অনুষ্ঠানস্থলে এসে উপস্থিত হন সিসিক নির্বাচনের টেবিল ঘড়ি প্রতীকের প্রার্থী এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের। যা উপস্থিত ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

জনগণের প্রশ্নের জবাব দিচ্ছেন এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের

অনুষ্ঠানস্থলে সাত মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী কামরান অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন সাড়ে ১১টার দিকে, বিএনপির প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী উপস্থিত হন বেলা ১২টার একটু আগে। আর নাগরিক ফোরামের প্রার্থী এডভোকেট জুবায়ের অনুষ্ঠান শুরুর ১১ মিনিট আগে উপস্থিত হন। এসময়ে সুজন সম্পদক বদিউল আলম মজুমদার সহ গুটি কয়েক মানুষ অনুষ্ঠান স্থলে উপস্থিত ছিলেন। ভোটাররা বলছেন সময়ের প্রতি গুরুত্ব দেয়া এরকম জনপ্রতিনিধিই নগরীর উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন।

জনগণের মুখোমুখি অনুষ্ঠানে উপস্থিত জনগণের একাংশ

নগরীর ১১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আকমল হোসেন তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রয়ায় বলেন, ‘মানুষের জীবনের সময়ের গুরুত্ব অনেক। কিন্তু বর্তমান সময়ে সময়ানুবর্তিতা মেনে চলার প্রবণতা আমাদের সমাজ থেকে উঠে যাচ্ছে। তার মধ্যে অন্যান্য প্রার্থীরা নিজেদের ব্যস্ততা দেখিয়ে দেরি করে অনুষ্ঠানস্থলে এসেছেন ব্যতিক্রম কেবল মেয়র প্রার্থী জুবায়ের। নগরীর উন্নয়নে এরকম নেতৃত্বের প্রয়োজন।’

জাময়াতের সিলেট মহানগর আমীর এহসানুল মাহবুব জুবায়ের সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নাগরিক ফোরামের ব্যানারে মেয়র পদে নির্বাচন করছেন।

Comments

comments