খেলার আগে কোরআন পড়া, সমালোচকদের একহাত দিলেন তিউনেশীয় কোচ

রাশিয়া বিশ্বকাপে ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে খেলোয়াড়দের সঙ্গে কোরআনের আয়াত পড়ায় সমালোচনার শিকার হয়েছিলেন তিউনেশিয়ার জাতীয় ফুটবল দলের প্রধান কোচ। এবার তিনি সমালোচকদের একহাত দিলেন।

তিউনেশিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কোচ নাবিল মা’লুল বলেন, সমালোচনার নিয়ে আমার একটা কথা বলার আছে। সেটা হল, খেলা শুরুর আগে ফাতিহা পড়ায় যারা আমার সমালোচনা করছেন, তাদের হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া দরকার আছে।

তিনি বলেন, আমরা কোরআন ও ফাতিহা নিয়ে বেড়ে উঠেছি। স্কুলে যখন আমাদের পরীক্ষা থাকতো, তখন আমাদের মা সুরা ফাতিহা পড়তেন, যাতে আমরা ভাল করতে পারি। সকাল-সন্ধ্যার সব প্রার্থনাই ফাতিহার মধ্যে রয়েছে।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের প্রথম খেলার আগে ড্রেসিং রুমে নাবিলকে তার খেলোয়াড়দের সঙ্গে কোরআন পড়তে দেখা গেছে। যা পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

খেলার আগে কোরআন পড়ার সমালোচনা করে স্থানীয় গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব মুখতার আল হাফি বলেন, এটা হচ্ছে এক ধরনের ডাকিনীবিদ্যার কাজ ও কুসংস্কার।

Comments

comments