ওসি বললেন, ‘সমর শতভাগ মাদক ব্যবসায়ী’

জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে এক নিরীহ ব্যক্তি সমরকে ইয়াবা ও অস্ত্র দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এদিকে, পুলিশ বলছে, গ্রেফতারকৃত সমর চৌধুরী শতভাগ মাদক ব্যবসায়ী।

গ্রামের বাড়ি বোয়ালখালীতে একটি জমি নিয়ে বিরোধে জড়িত সঞ্জয় দাশ নামের লন্ডনপ্রবাসী একজনের ‘প্ররোচনায়’ পুলিশ গত রোববার রাতে তাকে গ্রেফতার করে। এরপর ‘ষড়যন্ত্রমূলকভাবে’ অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার দেখিয়েছে বলে অভিযোগ সমরের পরিবারের।

সমরের মেয়ে তমালিকা সাংবাদিকদের জানান, ‘রাতে বাবাকে পুলিশ চোখ বেঁধে সারোয়াতলীর বাড়িতে নিয়ে অস্ত্র ও ইয়াবা হাতে ধরিয়ে দিয়ে গ্রেফতার করে।’

তমালিকা আরো বলেন, ‘গত বছরের নভেম্বর মাসেও সঞ্জয় পুলিশ নিয়ে আমাদের বাসায় গিয়েছিলেন। আমাদের ঘরে ইয়াবা আছে বলে অভিযোগ করেন। আমাদের গ্রামের প্রতিবেশী স্বপন দাশ ও তার ভাইপো লন্ডনপ্রবাসী সঞ্জয় দাশের জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে পুলিশ এ ঘটনা ঘটিয়েছে।’

বোয়ালখালী থানার ওসি হিমাংশু বলেন, ‘সমরের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতেই তার গ্রামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিছানার নিচে ইয়াবা ও অস্ত্র পাওয়া যায়। সমর ইয়াবা ব্যবসায়ী সে বিষয়ে তারা নিশ্চিত। গত রোববার রাতে তাকে ধরা হয় ভিন্ন একটি মাদক মামলায়। যার বাদী পুলিশ। এ মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তাকে ধরে এনে জিজ্ঞাসাবাদের পর তার গ্রামের বাড়ির খাটের নিচ থেকে পুলিশ অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার করে।’

এক প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, ‘সমর শতভাগ মাদক ব্যবসায়ী। এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।’

এদিকে পুলিশের এই বক্তব্য ‘সম্পূর্ণ মিথ্যা’ দাবি করে সমরের মেয়ে তমালিকা চৌধুরী বলেন, অনেক বছর ধরে তাদের পরিবার চট্টগ্রাম শহরের নন্দনকানন এলাকায় থাকেন। দীর্ঘদিন তার বাবা গ্রামের বাড়িতে যান না।

গ্রেফতারকৃত সমর চৌধুরী গত কয়েক বছর ধরে চট্টগ্রাম জর্জ কোর্টে আইনজীবীর সহকারী হিসেবে কাজ করেন। অনেক আগে এলএলবি পাস করা সমর আগে একটি সিঅ্যান্ডএফ প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন।

এদিকে, সমর চৌধুরীর মুক্তি দাবিতে মঙ্গলবার বিকালে বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদের সামনে মানববন্ধন করেন তার পরিবারের সদস্যরা।

অপরদিকে, সমরকে গ্রেফতার ও তার হাতে অস্ত্র দিয়ে তোলা ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে সমরকে নিরপরাধ বলেই দাবি করা হচ্ছে।

Comments

comments