মাদকের যারা সম্রাট তারা সংসদেই আছে: এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, মাদক নির্মূলের নামে যাদের হত্যা করা হচ্ছে, তারা কারা আমরা জানি না। মাদকের যারা সম্রাট তারা সংসদেই আছে এবং তাদের কিছুই হচ্ছে না। তাদেরকে বিচারের মাধ্যমে ফাঁসিতে ঝুলান।

বুধবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা, দোয়া ও ইফতার মাহফিলে তিনি একথা বলেন।

এরশাদ বলেন, যারা মাদকের সাথে যুক্ত, আগামী সংসদে আইন করে তাদেরকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া উচিত। সরকারের মাদকবিরোধী অভিযানে ক্রসফায়ারের নামে যাদের হত্যা করা হচ্ছে তাদের পরিচয় জাতি জানতে চায়। এভাবে বিনা বিচারে মানুষ হত্যা করতে পারেন না। প্রত্যেক নাগরিকেরই সাংবিধানিকভাবে বিচার পাওয়ার অধিকার আছে। কোথাও এর নজির নেই। বিশ্ব এটা মেনে নেবে না।

মাদক নির্মূলে আগামী সংসদ অধিবেশনই সর্ব্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে আইন করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতিতে পুলিশ প্রধানের সাথে খোশগল্পে মগ্ন ইয়াবা সম্রাট বদি। উপস্থিত আছেন র‌্যাব প্রধান বেনজিরও।

যানজট প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, যানজটের কারণে প্রতিদিন ৫১ লাখ কর্মঘণ্টা অপব্যয় হচ্ছে। হাজার হাজার কোটি টাকা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে দেশ। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে বিকেন্দ্রীকরণ করতে হবে। প্রাদেশিক শাসনব্যবস্থা কায়েম করতে হবে। জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় এলে এগুলো বাস্তবায়ন করে ঢাকাকে যানজট মুক্ত করবে।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিরোধীদলের নেতা ও দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, কাজী ফিরোজ রশিদ, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, জহিরুল আলম রুবেল প্রমুখ।

Comments

comments