‘বাতিলের অপতৎপরতা আদর্শ দিয়ে মোকাবেলা করতে হবে’-শিবির সভাপতি

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেছেন, ছাত্রশিবিরের অব্যাহত অগ্রযাত্রায় ইসলাম বিরোধী শক্তি শঙ্কিত হয়ে পড়েছে। হত্যা-গুম, জুলুম-নির্যাতন আর অপপ্রচার চালিয়েও অগ্রযাত্রা বাধাগ্রস্থ করতে না পেরে ছাত্রশিবিরকে নিয়ে দেশ বিদেশে নানামুখী ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। এ অবস্থায় বাতিলের সকল অপতৎপরতা আদর্শ দিয়ে মোকাবেলা করতে হবে।

তিনি আজ ছাত্রশিবির ঢাকা জেলা দক্ষিণ ও মুন্সিগঞ্জ জেলার সদস্য শিক্ষা শিবিরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ঢাকা জেলা দক্ষিণ সভাপতি আমিনুল ইসলামের পরিচালনায় ও মুন্সিগঞ্জ জেলা সভাপতি আব্দুল গাফফারের ব্যবস্থাপনায় শিক্ষা শিবিরে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ডা: ফখরুদ্দিন মানিক, কেন্দ্রীয় শিক্ষা সম্পাদক মো. রাশেদুল ইসলাম ও ঢাকা মহানগরী পূর্বের সভাপতি সোহেল রানা মিঠুসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

শিবির সভাপতি বলেন, যারা রাসূলের আদর্শকে ধারণ করতে পারেনি তারা সেই আদর্শকে মেনেও নিতে পারেনি। বরং রাসূলের আদর্শ বাস্তবায়নে যারা কাজ করছে ইসলাম বিরোধী শক্তি তাদের উপর জুলুম, নির্যাতন ও অপপ্রচারের মাধ্যমে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই ছাত্রশিবির গঠনমূলক কর্মসূচির পাশাপাশি ইসলাম ও দেশ রক্ষার কাজ অব্যাহত রেখেছে। ফলে ছাত্রশিবিরের পথ চলায় ছাত্রজনতার ভালবাসা ও অংশগ্রহণ ক্রমেই বিস্তৃত হচ্ছে। আর তাতে বাতিল শক্তি ইসলামী আন্দোলনকে তাদের প্রধান প্রতিপক্ষ করে নিয়েছে। একের পর এক জুলম নির্যাতন ও অবিচারের নিকৃষ্ট নজির স্থাপন করে চলেছে। তাই ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মীদেরকে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সাহসিকতা ও বুদ্ধিমত্তার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ছাত্রশিবিরের প্রতিটি কর্মকান্ডের সাথে পরকালের সফলতার বিষয়টি সম্পৃক্ত। কেননা পৃথিবীতে প্রত্যেক মুমিনের টার্গেট হচ্ছে নিজ আমলের দ্বারা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করা। এ পথে চলতে গিয়ে নানা প্রতিকূলতা আমাদের পথ আগলে দাঁড়াবে এটাই বাস্তবতা। কিন্তু যারা পরকালীন সফলতার লক্ষে কাজ করে সাময়িক দু:খে-কষ্টে তারা কখনো মুষড়ে পড়েনা। বরং ঈমানী শক্তি দিয়ে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবার চেষ্টা করে। তাই ছাত্রশিবিরের প্রত্যেক নেতাকর্মীকে সাহাবীদের মত ঈমানের বলে বলীয়ান হতে হবে।

Comments

comments