রাজধানীতে জলাবদ্ধ রাস্তায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে পথচারীর করুণ মৃত্যু

রাজধানীতে জলাবদ্ধ রাস্তায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে পথচারীর করুণ মৃত্যু

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, এক নারী বিদ্যুতায়িত হয়ে জলাবদ্ধ রাস্তায় একটি বাড়ির গা-ঘেঁষে পড়ে আছে। মাঝে মধ্যে একটু নড়াচড়াও করছে। এ সময় দু’জন ব্যক্তি বাঁশ দিয়ে সেখান থেকে তাকে সরানোর চেষ্টা করছেন। কিন্তু ওই নারীকে কিছুতেই সেখান থেকে সরাতে পারছেন না তারা। এ সময় আশপাশের মানুষ বিদ্যুতের সুইচ অফ করার জন্য বার বার চিৎকার করছিলেন।

এরই মধ্যে এক নারীর কণ্ঠে বেশ জোরেশোরে আকুতি শোনা যাচ্ছিল। তিনি বলেন, মেইন সুইচ বন্ধ করেন। এক বেডা মইরা গেছে। আর ওই বেডি রাস্তার ওপর মইরা যাইতাছে। ও আল্লাহরে, মেইন সুইচ বন্ধ করেন।

পাশ থেকে কেউ এক জিজ্ঞাসা করাতেই আকুতি জানানো নারী বলেন, আহা রে, আহা রে, রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল, রাস্তার মধ্যে কারেন্ট। এই আপনাদের মেইন সুইচ বন্ধ করেন। বেটি রাস্তার মধ্যে মরে যাইতাছে গা।

এরপর উদ্ধারে নামা দুইজন ব্যক্তির সঙ্গে আরও কয়েকজন এগিয়ে আসেন। তারা বাঁশ ও প্লাস্টিকের বস্তা দিয়ে সেখান সরিয়ে নেন। এ সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট নারী তখন আর্তনাদ করছিলেন।

রবিবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর পুরান ঢাকার ওয়ারীর বনগ্রামের ১২৮ নম্বর রাস্তায় জমে থাকা পানির ওপর এমন ঘটনা ঘটে। এতে এক পথচারীর মৃত্যু হলেও ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান ওই নারী।

ওয়ারী থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, ওই রাস্তায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে জেসমিন ও জিন্নাহ নামে দুইজন আহত হয়েছিলেন। তাদের হাসপাতালে নেওয়ার পর জিনাহ নামের একজন মারা যান। আর জেসমিনকে তার স্বামী নিয়ে যান।

জানা গেছে, জিন্নাহর গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লাহ উপজেলার নন্দলালপুর গ্রামের মৃত শামসুদ্দিন চোকদারের ছেলে।

Comments

comments