ক্ষেপে গিয়ে নামফলক ভাঙলেন ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা

সমালোচনার মুখে নামফলক ভেঙে ফেললেন ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা (ছবি: সাইফুল ইসলাম খান)

ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা। এই শিরোনামে একটি বাড়ির নামফলকের ছবি গতকাল সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এই ছবি ব্যবহার করে অনেকেই বিভিন্ন ব্যাঙ্গাত্মক মন্তব্য করেছেন। অনেকে লিখেছেন কৌতুক। আর কেউবা ছবি পোস্ট করে জানতে চেয়েছেন ঘটনার সত্যতা। যেভাবেই হোক, সবমিলিয়ে এই ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধার নামফলকের ছবি হাস্যরসের পাশাপাশি ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।

আর এই সমালোচনার ধকল সহ্য করতে না পেরে বাড়ির নামফলকটিই ভেঙে ফেলে ভারমুক্ত হতে চেয়েছেন কথিত ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোঃ আহসান উল্লাহ। মুক্তিযোদ্ধারা জাতির পরম শ্রদ্ধার পাত্র। তবে স্বাধীন দেশে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে ক্ষোভ আছে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা থেকে সাধারণ মানুষের মনে। ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা লেখা একটি নাম ফলকের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর তুমুল সমালোচনার জন্ম দেয়। সমালোচনার তীব্রতা অনুভব করে বাড়ির মালিক নাম ফলকটি তুলে দিয়েছেন।

মুক্তিযুদ্ধের নাম ভাঙিয়ে সুবিধা নিতে তৎপরে একশ্রেণির স্বার্থান্বেষী

এই ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে ‘সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা’ নামে একটি ফেস্টুনও সমালোচিত হয়েছে ফেসবুকে। ফেসবুক ব্যবহারকারীরা এসব কর্মকান্ডে বিরক্তিও প্রকাশ করছেন। তারা মনে করছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধকে পুঁজি করে একশ্রেণির স্বার্থান্বেষী মহল বাড়তি সুবিধা গ্রহণের আশায় এসব হাস্যকর কাজ করছেন। কিন্তু এসব কুচক্রীদের নিয়ন্ত্রনে সরকারের কোন উদ্যোগ নেই বললেই চলে।

Comments

comments