বিউটি ধর্ষণ ও হত্যা মামলার প্রধান আসামি বাবুল গ্রেফতার

সিলেটের বিয়ানীবাজার এলাকা থেকে পুলিশ ও র‍্যবের একটি যৌথ দল বাবুল মিয়াকে গ্রেফতার করেছে

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জের আলোচিত বিউটি আক্তার ধর্ষণ ও হত্যা মামলার প্রধান আসামি বাবুল মিয়াকে গ্রেফতার করেছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে সিলেটের বিয়ানীবাজার এলাকা থেকে পুলিশ ও র‍্যাবের একটি যৌথ দল তাকে গ্রেফতার করে।

র‍্যাব-৯ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (গণমাধ্যম) মনিরুজ্জামান বাবুল মিয়াকে গ্রেফতারের কথা নিশ্চিত করেছেন।

এক দিন আগে হবিগঞ্জ থেকে নিখোঁজ হওয়ার পর গত ১৭ মার্চ একটি হাওর এলাকা থেকে বিউটি আক্তারের (১৬) লাশ উদ্ধার করেছিল পুলিশ।

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ থানার বিউটি আক্তারকে তার কাজে যাওয়ার পথে বাবুল মিয়া ও তার সহযোগীরা উত্যক্ত করত। এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় বিউটিকে তার বাসা থেকে অপহরণ করে একটি অজ্ঞাত স্থানে এক মাস (২১ জানুয়ারি-২১ ফেব্রুয়ারি) জিম্মি রেখে ধর্ষণ করে বাবুল।

এ ঘটনায় বাবুল মিয়া ও তার মা একই ইউনিয়নের নারী সদস্য কলম চান বিবিসহ ১১ জনকে আসামি করে হবিগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ ট্রাইব্যুনালে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন বিউটির দিনমজুর বাবা। মামলার পর থেকে আসামিরা মামলা প্রত্যাহারের জন্য ওই পরিবারটিকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় ১৩ মার্চ বিউটিকে হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলায় আত্মীয়ের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় তার পরিবার। ১৬ মার্চ বাবুল তাকে ফের অপহরণ ও ধর্ষণ করে। পরদিন একটি হাওরে তার লাশ পাওয়া যায়।

১৮ মার্চ বিউটির বাবা হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Comments

comments