চবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ৫

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের মধ্যে ত্রিমুখী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পাঁচ জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে চারজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরাওয়ার্দী ক্যাফেটেরিয়ার সামনে ও রেল স্টেশন এলাকায় এ ঘটে।

আহতরা হলেন, রিয়াজ রাফি (২১), সাজিদ (২২) , তারেক ইকবাল (২৫) নিয়মত উল্লাহ (২১) ও কামাল (২২)।

চবি সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ‘সিক্সটি নাইনে’র কর্মীরা ‘ভিএক্স গ্রুপের এক কর্মীকে মারধর করে। পরে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এর পর ‘সিক্সটি নাই’‘ গ্রুপ শাহজালাল হলে ও ভিএক্স সোহরাওয়ার্দী হলে অবস্থান নেয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বিকেলে এ ঘটনার জের ধরে ‘সিক্সটিনাইন’ গ্রুপের ২০১৭-১৮ সেশনের রুবেল ও রফিক বিশ্ববিদ্যালয় সোহরাওয়ার্দী ক্যাফেটেরিয়ায় নাস্তা করতে গেলে তাদেরকে মারধোর করে ভিএক্সের নেতাকর্মীরা। এ খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে ফের দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হন।

অন্যদিকে, পূর্ব শক্রতার জের ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ২০১৪-১৫ সেশনের সাদাফ কবিরকে কুপিয়ে জখম করেছে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতারা। সাদাফকে প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

চবির সহকারি প্রক্টর লিটন মিত্র বলেন, ‘ক্যাম্পাসে কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনায় ৬ জন আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ক্যাম্পাসে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

Comments

comments