পুলিশী নির্যাতনে নিহত ছাত্রদল নেতার পরিবারের পাশে ছাত্রশিবিরের নেতৃবৃন্দ

নিহত ছাত্রদল নেতা মিলনের পরিবারের সদস্যদের সাথে নিয়ে দোয়া করছেন শিবির নেতৃবৃন্দ

পুলিশ রিমান্ডে নিহত ছাত্রদল নেতা জাকির হোসেন মিলনের পরিবারের সাথে দেখা করেছেন ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। গতকাল দুপুরে কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদক সালাউদ্দিন আইয়ুবির নেতৃত্বে মিলনের গাজীপুরের মাঝুখান এলাকার বাড়িতে তার পরিবারের সাথে দেখা করেন নেতৃবৃন্দ। এসময় পুবাইল গাজীপুর থানা আমীর, গাজীপুর মহানগরী শিবিরের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান, তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের সহ সভাপতি রাশেদুল ইসলাম, ছাত্রশিবির গাজীপুর মহানগরী সেক্রেটারি ফখরুল আলম সিফাতসহ, স্থানীয় জামায়াত ও শিবিরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। নেতৃবৃন্দ মিলনের পরিবারের সার্বিক খোঁজ খবর নেন ও তার পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

নিহত ছাত্রনেতা জাকির হোসেন মিলনের অবুঝ ছোট মেয়ের সাথে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদক সালাউদ্দিন আইয়ুবি

সমবেদনা জানাতে গিয়ে শিবির নেতৃবৃন্দ বলেন, অবৈধ সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসন জনগণের বুকে চেপে বসেছে। সরকারের নির্দেশেই জাকির হোসেন মিলনকে রিমান্ডের নামে নির্যাতন করে খুন করা হয়েছে। বিনা অপরাধে শুধুমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসা বাস্তবায়ন করতে গিয়ে মায়ের বুক খালি করা হয়েছে। এতিম করা হয়েছে অবুঝ শিশুদের। জাকির হোসেনের বাবা নেই। তার বৃদ্ধা মা, স্ত্রী, দুই শিশু সন্তান ও ছোট দুই বোন করুণ অবস্থার মধ্যে পড়েছে। জামায়াত-শিবিরের বহু নেতাকর্মীকেও শুধুমাত্র ভিন্ন মতের কারণে তার মতই নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি দেলাওয়ার হোসেনকে একটানা ৪২ দিন রিমান্ডে রেখে অমানুষিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। একই কায়দায় বহু নেতাকর্মীকে গুম, খুন করেছে পুলিশ। এরকম শত শত পরিবারের পরিবারের আহাজারিতে প্রতিনিয়ত ভারী হচ্ছে এদেশের বাতাস। যারা দেশ ও গণতন্ত্র রক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে তাদের অনেকেই অবৈধ সরকারের আক্রোশের শিকার হতে হয়েছে। এই সরকার যতদিন থাকবে ততদিন জনগণের কষ্ট শুধু বাড়বেই। এখন সকলের ঐক্য প্রয়োজন। সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে জনগণকে রুখে দাঁড়াতে হবে।

সাক্ষাতের সময় নেতৃবৃন্দ পরিবারের সদস্যদের হাতে ছাত্রশিবিরের পক্ষ থেকে সৌজন্য সামগ্রী তুলে দেন। পরে নিহত জাকির হোসেনের কবর যিয়ারত এবং তার রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করেন।

Comments

comments