ভারতে চিকিৎসা নিতে গিয়ে বাংলাদেশি তরুণী ‘নিখোঁজ’

ভারতে চিকিৎসা করাতে এসে ‘নিখোঁজ’ হয়েছেন এক বাংলাদেশি তরুণী। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বাবার সঙ্গে ভারতে যান তিনি। গত ২ মার্চ থেকে ওই তরুণীকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে তাঁর পরিবার।

দীর্ঘদিন খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার ধানতলা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন তরুণীর বাবা।

নদীয়ায় স্বজনদের বাসায় ছিলেন তরুণী ও বাবা। বাংলাদেশের তাদের বাড়ি মাগুরা জেলায়।

তরুণীর পরিবারের অভিযোগ, সীমান্ত সংলগ্ন এই এলাকা থেকে পাচারের উদ্দেশে তরুণীকে তুলে নিয়ে গেছে পাচারকারী চক্র। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে সন্ধান না মেলায় অবশেষে পুলিশের কাছে আসে তরুণীর স্বজনরা পুলিশের কাছে যান।

জানা যায়, প্রাথমিকভাবে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করার পর বাংলাদেশে ফিরে যান বাবা। তাঁর অভিযোগ, বাংলাদেশে থাকাকালীন তাঁর এক আত্মীয়ের নম্বরে ভারতের একটি নম্বর থেকে ফোন করেন তাঁর মেয়ে। ফোনে তাঁকে অসৎ উদ্দেশে আটকে রাখার কথা জানানো হয়।

স্বজনদের অভিযোগ, এরপর থেকে ওই ফোন বন্ধ আছে। পুনরায় ভারতে ফিরে আসেন বাবা। ফিরে এসে কোনো জায়গায় মেয়ের খোঁজ না মেলায় অবশেষে গতকাল ভারতীয় পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ জানানো হয়।

Comments

comments