বাসে ডাকাতি, ধর্ষণ ও হত্যা: গ্রেপ্তারের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

সাভারের আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে তরুণী ধর্ষণ, ডাকাতি ও চালককে হত্যার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত পুলিশের ক্রসফায়ারে নিহত হয়েছেন। নিহত রুবেলকে ডাকাত দাবি করেছে পুলিশ। তিনি গ্রেপ্তার ছিলেন।

শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে এ কথিত বন্দুকযুদ্ধ হয়। নিহত রুবেলের (২৫) বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে।

পুলিশের দাবি, ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল ও কয়েকটি গুলি উদ্ধারের করেছে।

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) সাইদুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সম্প্রতি আশুলিয়ায় একটি বাসে ডাকাতি হয়। ডাকাতেরা বাসের চালককে হত্যা করে। বাসে ধর্ষণের ঘটনাও ঘটে। এই ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া আসামিরা রুবেলের নাম জানায়।

সাইদুর রহমান বলেন, গ্রেপ্তারের পর গত রাতে রুবেলকে নিয়ে আশুলিয়া এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ। এসময় তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। বন্দুকযুদ্ধে রুবেল নিহত হন।

গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ভোরে টাঙ্গাইল থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা ইনসাফ পরিবহনের ‘ধলেশ্বরী’ বাসে (ঢাকা মেট্রো ব-১১-৬৪৪৬) তরুণী ধর্ষণ, ডাকাতি ও চালককে হত্যার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Comments

comments