ফের শহীদ মীর কাসেম আলীর বাসায় পুলিশের রহস্যজনক তল্লাশী

পিতার সাথে ব্যারিস্টার মীর আহমাদ বিন কাসেম (ফাইল ফটো)

কথিত যুদ্ধাপরাধের মামলায় দণ্ডিত জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর বাসায় আবারও রহস্যজনক তল্লাশী চালিয়েছে পুলিশ। কিন্তু কি উদ্দেশ্যে পুলিশের এ তল্লাশী তা জানা যায়নি। আজ দুপুর সাড়ে ৪টার দিকে শহীদ মীর কাসেম আলীর স্ত্রী আয়েশা খন্দকার ফেসবুকে লিখেছেন – “আবারো পুলিশি হামলা বাসায়। সবাই ব্যস্ত সাত মার্চ উৎযাপন নিয়ে। আর আমি ব্যস্ত পুলিশী হানা পরবর্তী ট্রমা নিয়ে।” এর আগেও কয়েকবার মীর কাসেম আলীর বাসায় তল্লাশী চালিয়েছে সাদা পোষাকের পুলিশ। কিন্তু কেন এ তল্লাশী তার কোন ব্যাখ্যাই তারা তার পরিবারের কাছে দেয়নি।

এদিকে মীর কাসেম আলীর পুত্র ও তার আইনজীবি ব্যারিস্টার আহমাদ বিন কাসেম আরমানকে গত ১০ আগস্ট ২০১৬ তারিখে তার নিজ বাসা থেকে পুলিশ তুলে নিয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত পুলিশ তার গ্রেফতারের কথা স্বীকার করেনি। তার পিতার রায় কার্যকরের আগে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ায় শেষ মূহুর্তে তার সাথে কোন কথাও বলতে পারেননি জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলী। মানসিকভাবে বিপর্যস্ত তার পরিবারের সদস্যদের তল্লাশীর নামে বারবার হয়রানি করা হচ্ছে। ফেরত দেয়া হচ্ছে না তার আইনজীবি পুত্র ব্যারিস্টার আরমানকেও।

ব্যারিস্টার আরমানকে তুলে নিয়ে যাওয়ার আগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ফাঁসির পর তাঁর ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরীকেও তুলে নিয়ে যায় পুলিশ। গত বছরের ৩ মার্চ তাকে তার বাড়ির সামনে ফেলে গেলেও আজ পর্যন্ত সন্ধান মেলেনি মীর কাসেম আলীর পুত্র ব্যারিস্টার আরমান ও অধ্যাপক গোলাম আযমের পুত্র ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব) আব্দুল্লাহিল আমান আযমীর।

Comments

comments