বেগম জিয়ার জামিন ঠেকাতেই নথি পাঠাতে বিলম্ব: আইনজীবী

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেযারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেছেন, হাইকোর্ট যেন সহসা খালেদা জিয়াকে জামিন বিষয়ে আদেশ দিতে না পারেন সেজন্য সরকার নথি পাঠাতে বিলম্ব করছে। এ জন্য আমরা যেমন উদ্বিগ্ন ও গোটা জাতিও আজ উদ্বিগ্ন।

রোববার বিকেলে সুপ্রিম কোর্টে অবস্থিত সমিতির নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সন্মেলনে তিনি একথা বলেন।

খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে আমাদের আইনজীবীদের মধ্যে সমন্বয় নেই অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে জয়নুল আবেদীন বলেন, আমাদের মধ্যে যথেষ্ট সমন্বয় রয়েছে। এ নিয়ে মানুষের মধ্যে অযথা বিভ্রান্তির সৃষ্টি করবেন না।

তিনি বলেন, আমরা উদ্বিগ্ন, দেশবাসী আজ উদ্বিগ্ন। খালেদা জিয়াকে একটা অন্ধকার কুপের মধ্যে রাখা হয়েছে। যেখানে উনাকে রাখা হয়েছে এটাকে কোন জেলখানা বলা যায় না। এটা এক সময় জাদুঘর ছিল।

বার সভাপতি বলেন, আমাদের একটা আইনজীবী প্যানেল আছে। নিম্ন আদালতের বিভিন্ন বিষয়ে আমরা অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালকদার ও আমিনুল ইসলামকে দায়িত্ব দিয়েছি।

উনারা চেষ্টা করছেন কীভাবে রেকর্ডটা অতি দ্রুত হাইকোর্টে আনা যায়। হাইকোর্টের আদেশের পর তারা প্রতিদিন নিম্ন আদালতে যোগায়োগ রক্ষা করছেন। কিন্তু আনা সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি বলেন, আমি আগে বলেছিলাম সরকার যদি হস্তক্ষেপ না করে তাহলে এ রেকর্ডটা কালকের মধ্যে পাওয়া যাবে। আমাদের আইনজীবীরা এ বিষয়ে বিচারিক আদালতের দৃষ্টি গোচর করেছিলেন।

আদালত বলেছেন, ডকুমেন্টস টাইপসহ ইত্যাদি কারেণ সময় লাগছে।

সংবাদ সম্মেলনে অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়াসহ বেগম জিয়ার অন্য আইনজীবীরাও উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments