ইবির অ্যাম্বুলেন্স আটকে ছাত্রীদের টাকা গয়না ডাকাতি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) একটি অ্যাম্বুলেন্স একদল ডাকাতের কবলে পড়েছে। ডাকাতদল অ্যাম্বুলেন্সে থাকা কয়েকজন ছাত্রীর মোবাইল ফোন, গয়না ও টাকাও নিয়ে গেছে। মঙ্গলবার ভোর রাতের দিকে ঝিনাইদহের শৈলকুপার বড়দহ নামক এলাকায় ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে।

অসুস্থ এক ছাত্রীকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি শেষে ইবি ক্যাম্পাসে ফেরার পথে ডাকাতির কবলে পড়ে অ্যাম্বুলেন্সটি। এতে বেশ অসুস্থ ছাত্রীটির সহপাঠী কয়েকজন ছাত্রী ছিলো। ডাকাতেরা অ্যাম্বলেন্সের চালককেও বেধড়ক মারধোর করে এবং গাড়ির কাঁচ ভেঙে ফেলে।

কিছুদিন একই সড়কে ইবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারীর ওপর হামলার ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ডাকাতদের হামলার এ ঘটনা ঘটলো।

অ্যাম্বুলেন্সের চালক আব্দুল খালেক ঢাকাটাইমসকে জানান, ভোর রাতের দিকে ইবি ক্যাম্পাসে ফেরার পথে কালোকাপড়ে মুখ ঢাকা ৫/৬ জন দুর্বৃত্ত অ্যাম্বুলেন্স আটকে টাকা দাবি করে। টাকা দিতে অসমর্থ হলে তাকে বেধড়ক মারধর এবং অ্যাম্বুলেন্সের গ্লাস ভেঙ্গে ফেলে। অস্ত্রের মুখে অসুস্থ ছাত্রীর সহপাঠীদের কাছ থেকে মোবাইল, টাকা ও ব্যাগ এবং গহনা ছিনিয়ে নেয় তারা। ঘটনার কিছুক্ষণ পরে পুলিশ এলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

শৈলকুপা থানার কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, ঘটনার তদন্ত চলছে। আইনগত ব্যবস্থাও প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এখন পর্যন্ত সন্দেহভাজন একজনকে আটক করা হয়েছে।

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, প্রশাসনের ছত্রছায়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে সরকারের আশু পদক্ষেপ কামনা করছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান বলেন, এ ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

Comments

comments