জাবিতে ছাত্রলীগের নির্যাতনের শিকার ছাত্রদল নেতার অবস্থা আশঙ্কাজনক

সার্টিফিকেট নিতে গিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের মারধরের শিকার ছাত্রদল নেতা আফফান আলীর শরীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। ১১ ফেব্রুয়ারি গুরুতর আহত আফফানকে সাভারের এনাম মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছিল। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ১২ ফেব্রুয়ারি তাকে ধানমণ্ডির একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় ।

শনিবার কর্তব্যরত ডা. আব্দুল মুকিত বলেন, আফফানের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার হাত-পা ও কিডনিতে গুরুতর আঘাত লেগেছে। তাছাড়া কিডনিতে ক্রিয়েটিনিনের স্বাভাবিক মাত্রা (০.৫ থেকে ১.৫) থেকে বেড়ে ১০ হওয়ায় ঝুঁকি বেড়েছে। অবস্থার উন্নতি না হলে দ্রুত কিডনি ডায়ালাইসিস করতে হবে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গত ১১ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে শাখা ছাত্রলীগের ছাত্র বৃত্তিবিষয়ক সম্পাদক বাসুদেব মজুমদার, কার্যকরী সদস্য আসিফ রিবর্ন, ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুল, মেহেদী, ইয়াসিন, জিম, মামুন, সুপ্তসহ ১০-১২ জন মিলে আফফানকে মারধর করে। আফফান আলী বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগে ৩৯ ব্যাচের শিক্ষার্থী ও শহীদ সালাম-বরকত হল শাখা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক।

এদিকে আফফানকে মারধরের প্রতিবাদ জানিয়ে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরাম। ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. শামছুল আলম সেলিম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে হামলার সঙ্গে জড়িত চিহ্নিত ছাত্রলীগ কর্মীদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান তারা।

Comments

comments