ছেলের বিবাহ বার্ষিকীতে মায়ের আকুতি, কোথায় ব্যারিস্টার আরমান?

নিজ পরিবারের সাথে আনন্দঘন মূহুর্তে ব্যরিস্টার আরমান (ফাইল ফটো)

ডেস্ক রিপোর্ট: গতকাল ছিল ব্যারিস্টার আহমাদ বিন কাশেম (আরমান) এর বিবাহ বার্ষিকী। ব্যারিস্টার আরমান কথিত মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা ও বিশিষ্ট শিল্পোদ্যোক্তা মীর কাসেম আলীর কনিষ্ঠ পুত্র। মীর কাসেম আলীর রায় কার্যকরের আগেই আরমানকে তার নিজ বাসা থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। উল্লেখ্য, ব্যারিস্টার আরমান তার নিজ পিতার আইনজীবি হিসেবে কাজ করছিলেন।

গতকাল আরমানের বিবাহ বার্ষিকীতে তার মা আয়েশা খন্দকার ফেসবুকে লেখেন ‘আজ আরমানের বিয়ের দিন। আমার নিরপরাধ ছেলেকে ছেড়ে দিন। আজ ১ বছর ৬ মাস চলছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে বন্দী আমার ছেলে।’

ব্যারিস্টার আরমানের মায়ের এ আঁকুতিতে সমবেদনা জানিয়েছেন অনেকেই। রবিউল হাসান লিখেছেন- ‘মাগো তোমাকে বলছি শোন, কেঁদনা মা কেঁদনা। তোমার ছেলে তোমার কোলেই ফিরে আসবে, ইনশাআল্লাহ।’ আবু জারির লিখেছেন- ‘হে রব! মায়ের ছেলেকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দাও।’ ফারহানা শারমিন জেনি লিখেছেন- ‘আল্লাহ আপনি সহজ করে দিন পরীক্ষাগুলো। মায়ের কাছে সন্তানকে, সন্তানের কাছে বাবাকে, স্ত্রীর কাছে স্বামীকে ফিরিয়ে দিন আল্লাহ।’

আদনান মাহমুদ লিখেছেন- ‘নির্মমতার কতদূর হলে জাতি হবে নির্লজ্জ!! চিৎকার করে কাঁদিতে চাহিয়া করিতে পারিনা চিৎকার!’ আয়েশা সিদ্দিকা লিখেছেন- ‘এই নিষ্পাপ শিশুদের কাছে তাদের বাবাকে তুমি ফিরিয়ে দাও আল্লাহ..!!’ এহসান বিন আলী লিখেছেন- ‘আমরা আশায় আছি ছেলে ফিরবে। জালিম একদিন পরাস্ত হবেই হবে।’ জান্নাতুল ফিরদাউস পলি লিখেছেন- ‘ও আরশের মালিক তুমি এই মজলুম মা, স্ত্রীর ও সন্তানদের ফরিয়াদ কবুল করো। আমাদের ধৈর্য দান করো সহ্য করার। এমন পরীক্ষা নিওনা যাতে পাশ করতে পারবো না। রহম করুন দয়াময়।’

আরমানের মা ও তার শুভানুধ্যায়ীদের এ গগনবিদারী হাহাকার ও হৃদয়ভাঙা আকুতি বিগত দেড় বছর ধরেই চলছে। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে পরিবারের নিকট ফেরত দেয়া তো দূরের কথা, গ্রেফতারের দায় স্বীকার পর্যন্ত করেনি।

Comments

comments