ভোলার লালমোহনে শিশু হত্যা, আটক-১

জুবায়ের চৌধুরী পার্থ ভোলা: ভোলার লালমোহন উপজেলার বিছিন্ন গ্রাম চর কচুয়াখালীর কেওড়া বাগান থেকে গত বুধবার দুপুরে নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর সাথী(১১) নামের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত সাথী ঐ গ্রামের কৃষক আমির হোসেনের মেয়ে।

সাথীর পরিবার অভিযোগ করে জানান যে, গত সোমবার দুপুরের দিকে একই গ্রামের পাশ্ববর্তী ঘরের মোশারফ (৩২) নামে এক যুবক মাছ ধরার কথা বলে সাথীকে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যায়। তার পর থেকে সাথীর আর কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। স্থানীয় একাধিক লোকজন মোশারফের সাথে সাথীকে দেখেছেন বলে জানায় পুলিশকে।

লালমোহন সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এস.এম মিজানুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত ওসি মো: শাখাওয়াত হোসেন জানান, মঙ্গলবার সাথীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে উদ্ধার করতে দিনভর চরে অনুসন্ধান চালায়। পুলিশ ও গ্রামবাসী মিলে সাথীকে খুঁজে না পেয়ে অভিযুক্ত মোশারফকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে লালমোহন থানার পুলিশ। এ বিষয়ে মোশারফ এখন পর্যন্ত মুখ খোলেনি।

লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি মো: শাখাওয়াত হোসেন বলেন, শিশুটিকে ধর্ষনের কোন আলামত পাওয়া যায়নি। ধারনা করা হয়েছে শিশুটিকে গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে। গলায় ও নাকে আঘাতের চিহ্ন আছে। সাথীর লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর থানায় প্রেরণ করা হয়েছে বলে যানায় পুলিশ।

Comments

comments