বগুড়ায় বইমেলায় ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ৪

বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজে বৃহস্পতিবার বিকেলে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ নেতাদের অতিথি করার বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

সংঘর্ষে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতিসহ ৪জন আহত হন। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

শিক্ষার্থী ও পুলিশ ও কলেজ প্রশাসন সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে কলেজের বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি করা হয় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিনকে। শুরু থেকে কলেজ ছাত্রলীগের এক পক্ষ অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহনকেও অতিথি রাখার দাবি করে আসছিল। এনিয়ে কদিন ধরেই উত্তেজনা বিরাজ করছিল দুই পক্ষের মধ্যে। বিকেলে উদ্বোধনের আগে এর জের ধরে মেলা প্রাঙ্গণে বাকবিতণ্ডা হয় দুই পক্ষের। পরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মোজাম্মেল হোসাইন বুলবুল, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আবদুস সবুর, যুগ্ম সম্পাদক মিথিলেশ প্রসাদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুজ্জামান মৃদুল আহত হয়েছেন। তাদের শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার পর পরিস্থিতি শান্ত হয়।

মোজাম্মেল হোসাইন বুলবুল জানান, বিরোধীপক্ষের সন্ত্রাসীরা অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। যুগ্ম সম্পাদক মিথিলেশ প্রসাদকে বাঁচাতে গিয়ে তিনি আহত হয়েছেন। আর একটু দেরি হলে মিথিলেশকে তারা মেরেই ফেলত।

বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. শাহজাহান আলী জানান, ফেব্রুয়ারি মাস উপলক্ষে ২১ দিনব্যাপী বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিনকে প্রধান অতিথি করা হয়। আর মেলার শেষ দিন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহনকে প্রধান অতিথি করা হয়েছে। কিন্তু এইটা নিয়ে ছাত্রলীগের দুটি গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। যা দুঃখজনক।

জেলা পুলিশের গণমাধ্যম শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) সনাতন চক্রবর্তী জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতির পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে সেজন্য ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Comments

comments