জয়ের ধারায় থাকাটা দরকার ছিল: মাশরাফি

ত্রিদেশীয় সিরিজের পঞ্চম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে ৩২০ রান করার পর এমন সিদ্ধান্ত নেওয়াই ছিল স্বাভাবিক। কিন্তু বাংলাদেশ জিম্বাবুয়ের বোলিংয়ের সামনে ৯ উইকেটে ২১৭ রানের বেশি লক্ষ্য দিতে পারেনি। যদিও ৯১ রানের সহজ জয় পেয়েছে বাংলাদেশ তবু এমন রান আশা করেননি টাইগার অধিনায়ক।

ম্যাচ শেষে মাশরাফি বলেন, উইকেট দেখে মনে হয়েছিলো ভালো রান হবে। সাকিব-তামিম যেভাবে ব্যাট করছিলো তাতে ভালো রানই করতে পারতাম আমরা। কিন্তু মাঝখানে আমারা বেশ কিছু উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায়। এ সময় মুস্তাফিজের ইনিংসের প্রশংসা করেন টাইগার দলপতি।

তিনি বলেন, ‘মুস্তাফিজ তার ব্যাটিং অনুশীলনটা আজ ভালোই কাজে লাগিয়েছে।’

হেরে গেলে ড্রেসিং রুমে বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস অর্ধেকে নেমে আসতো উল্লেখ করে টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘জয়ের ধারা ধরে রাখা আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল, আশার কথা হলো আমরা তা পেরেছি।’

এর আগের দুই ম্যাচে ৮৪ রানের দুটি ইনিংস খেললেও সাকিবের অলরাউন্ডার পারফর্মে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হতে পারেননি তামিম। কিন্তু এই ম্যাচে ৭৬ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে ম্যান অব দ্যা ম্যাচের পুরষ্কার জেতেন দেশের হয়ে তিন ফরম্যাটে সবচেয়ে বেশি রান সংগ্রাহক।

বাঁহাতি এই ওপেনার পুরষ্কার হাতে নিয়ে বলেন, ‘এটা ব্যাটিংয়ের জন্য সহজ উইকেট ছিল না। এই উইকেটে ভালো খেলতে হলে ধৈর্য ধরে খেলতে হবে। আমি ও সাকিব সেটাই করছিলাম। কিন্তু আমি আউট হওয়ার পরে ভালো রান সংগ্রহ করা কঠিন হয়ে পড়ে।’

তিনি আরও বলেন, আমি ক্রিজে থাকলে ২৪০-২৫০ রান করা সম্ভব হতো। তারা বেশ ভালো বোলিং করেছে।

এ সময় একই ভ্যেনুতে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড নিয়ে তামিম বলেন, এমন অর্জন অবশ্যই গর্বের বিষয়। রান করার প্রতিযোগিতায় সাকিব তার পেছনে থাকার বিষয়ে তিনি জানান, সাবিকের সঙ্গে প্রতিযোগিতাটা তিনি চালিয়ে যেতে চান।

Comments

comments