নিখোঁজের পর শীতলক্ষ্যায় মিলল ঢাবি ছাত্রের লাশ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে নিখোঁজের ১২ ঘণ্টা পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী পারভেজ আহমেদের (২০) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।

সোমবার সকালে উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের বড়ালু এলাকার শীতলক্ষ্যা নদী থেকে লাশটি উদ্ধার নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত পারভেজ আহমেদ রূপগঞ্জের বড়ালু এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। রোববার রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন পারভেজ।

রূপগঞ্জ থানার ওসি সাজ্জাদুর রহমান জানান, পারভেজ স্থানীয় মেঘনা শ্রমজীবী সমবায় সমিতিতে খণ্ডকালীন চাকরি করতেন। রোববার রাত ৮টার দিকে সমিতির টাকার হিসাব বুঝিয়ে দেয়ার জন্য ফোনে তাকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

তিনি জানান, সকালে শীতলক্ষ্যা নদীর পাড়ে লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। নিহত ওই শিক্ষার্থীর শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

ওসি জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজন জাহাঙ্গীর, সোহাগ ও শারমিনকে আটক করা হয়েছে। তারা সবাই মেঘনা শ্রমজীবী সমবায় সমিতির সদস্য।

Comments

comments