নিজাম হাজারীকে নিয়ে মামলা শুনতে ‘বিব্রত’ বিচারক

ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর পদে থাকা নিয়ে রুল নিষ্পত্তির জন্য গঠিত হাইকোর্টের একক বেঞ্চ শুনানিতে ‘বিব্রতবোধ’ করেছেন বিচারক।

সোমবার বিচারপতি ফরিদ আহমেদের একক বেঞ্চে মামলাটি শুনানির জন্য আসে। এ সময় বিচারক তা শুনতে ‘বিব্রতবোধ’ করায় মামলার নথি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠানোর আদেশ দেয়া হয়।

ফলে প্রধান বিচারপতি এ মামলা নিষ্পত্তির জন্য নতুন একক বেঞ্চ নির্ধারণ করবেন বলে জানিয়েছেন রিট আবেদনকারীর আইনজীবী সত্যরঞ্জন মণ্ডল।

২০১৬ সালের ৬ ডিসেম্বর নিজাম হাজারীর পদে থাকার বৈধতা নিয়ে জারি করা রুলে বিভক্ত রায় দেন বিচারপতি মো. এমদাদুল হক ও বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

জ্যেষ্ঠ বিচারক মো. এমদাদুল হক রুল মঞ্জুর করে নিজাম হাজারীর পদে থাকাকে অবৈধ ঘোষণা করেন। আর কনিষ্ঠ বিচারক এফআরএম নাজমুল আহসান রিট ও রুল খারিজ করে দেন। অর্থাৎ তার রায়ে নিজাম হাজারীর এমপি পদ বৈধতা পায়।

এর পর নিয়মানুসারে রিট আবেদনটি প্রধান বিচারপতির কাছে গেলে মামলা নিষ্পত্তির জন্য তিনি একক বেঞ্চ গঠন করে দেন।

সত্যরঞ্জন মণ্ডল বলেন, ‘সোমবার আদালত এ মামলার শুনানি নিতে বিব্রতবোধ করেছেন। এ মামলা নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে এর আগেও কয়েকবার আদালত বিব্রতবোধ করেন’।

Comments

comments