ইসলামী রাষ্ট্র হলে কাউকে আর শীতবস্ত্রের জন্য লাইনে দাঁড়াতে হবেনা- এডভোকেট ড. হেলাল

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণেরর আমীর (ভারপ্রাপ্ত) ও কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য এডভোকেট ড. হেলাল উদ্দিন বলেছেন, যারা মানুষের প্রতি দয়া প্রদর্শন করেনা আল্লাহ তাদের কখনোইই অনুগ্রহ করেন না। তাই আল্লাহর অনুগ্রহ পেতে হলে সবাইকে মানবতার কল্যাণে কাজ করতে হবে। সে লক্ষ ও উদ্দ্যেশ্যকে সামনে রেখেই দুস্থ, আর্ত-পীড়িত ও বিপন্ন মানুষের কল্যাণে কাজ করছে জামায়াতে ইসলামী। আগামী দিনেও এ কল্যাণকামীতা অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। জামায়াত আল্লাহর জমীনে তার দ্বীন কায়েমের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আর ইসলামী রাষ্ট্র হলে জনগনের সব দায়-দায়িত্ব রাষ্ট্রের উপর বর্তাবে অখন আর কাউকে শীতবস্ত্রের জন্য লাইনে দাঁড়াতে হবেনা।

তিনি আজ বৃহস্পতিবার বিকালে ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের মতিঝিল থানার উদ্যোগে স্থানীয় জনগনের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

মতিঝিল থানা আমীর ও মহানগরী দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য কামাল হোসাইনের সভাপতিত্বে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে আরোও উপস্থিত ছিলেন মতিঝিল থানা সেক্রেটারি মুতাছিম বিল্লাহ, থানা কর্মপরিষদ সদস্য এস এ এম শামছুল বারী প্রমূখ নেতৃবৃন্দ।

ড. হেলাল আরোও বলেন, আমাদের দেশে ইসলাম কায়েম নেই বলেই আজ মানুষের কাছে মানুষকে হাত পাততে হচ্ছে। আর এ অবস্থা আমাদের সকলের জন্যই লজ্জাকর। এ লজ্জা থেকে জাতিকে মুক্ত করতে হলে দ্বীন প্রতিষ্ঠার কোনও বিকল্প নেই। প্রতিনিয়ত ক্ষমতাসীনদের কাছ থেকে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের কথা বলা হলেও জনগণ বারবার প্রতারিত হয়েছে। তাদের ভাগ্যের কোন পরিবর্তন হয়নি। দেশে ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠিত হলে জনগণ আর প্রতারিত হবেনা। তাই তিনি শোষণ মুক্ত ও ইনসাফপুর্ন সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সকলকে শরিক হওয়ার আহবান জানান।

তিনি আরোও বলেন, জামায়াত একটি কল্যাণকামী রাজনৈতিক সংগঠন ফলে সর্বাবস্থায় দেশের মানুষের মঙ্গলের জন্য কাজ করে। তিনি এই তীব্র শীতে অসহায়, দুস্থ ও বিপন্ন মানুষের পাশে থাকার জন্য সমাজের সহৃদয় ও বিত্তবান মানুষ এবং সরকারের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Comments

comments