প্রতিবেশীর ঘর বাঁচাতে গিয়ে জামায়াত নেতার মৃত্যু

চট্টগ্রাম নগরীতে আগুনে পুড়তে থাকা এক প্রতিবেশীর ঘর রক্ষায় নিজের ফ্ল্যাট থেকে পানি নিয়ে সীমানাপ্রাচীরের উপর দাঁড়িয়ে ছিটাতে গিয়ে পা ফসকে মারা গেছেন লোহাগাড়ার জামায়াত নেতা আবু কাউসার (৪৩)। তার বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া গ্রামে।

নিহত আবু কাউসার (৪৩) নগরীর লালখানবাজার এলাকার মাতৃছায়া ফ্ল্যাট বাড়ির বাসিন্দা। কাউসার ছিলেন মৎস্য চাষী ও ব্যবসায়ী। তার স্ত্রী ও দুই ছেলে-মেয়ে রয়েছে। বড় মেয়ে ক্লাস থ্রিতে পড়ে, ছোটটির বয়স বছর তিনেক বলে কাউসারের খালাতো ভাই মনজুর আলম জানিয়েছেন, শনিবার বেলা সোয়া ৩টার দিকে লালখানবাজার এলাকার মমতা ক্লিনিকের কাছে আবুল হোসেনের বসতঘরে আগুন লাগে। গ্যাসের চুলা থেকে সৃষ্ট আগুনে সেমি পাকা ঘরে ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের লোকজন তা নেভাতে এগিয়ে আসেন। তাদেরই একজন ছিলেন কাউসার। নিজের ফ্ল্যাট থেকে পানি নিয়ে এগিয়ে যান তিনি।

মনজুর আলম বলেন, “কাউসার বাড়ির সীমানা প্রাচীরের দেয়ালে উঠে পানি দেওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় পা পিছলে দেয়াল থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। পরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।রাতেই লোহাগাড়ায় গ্রামের বাড়িতে কাউসারকে দাফন করা হয়েছে।

আগুনে আবুল হোসেনের ঘরের প্রায় দুই লাখ টাকার মালামাল পুড়ে গেছে বলে ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মী বিশ্বান্তর বড়ুয়া জানিয়েছেন।

Comments

comments