তীব্র শীতে বিপর্যস্তদের পাশে দাঁড়ান -শিবির সভাপতি

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেছেন, চলমান শীতের তীব্রতায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের হতদরিদ্র মানুষের জীবনে বিপর্যয় নেমে এসেছে। পথশিশু ও ছিন্নমূলদের অবস্থা আরো শোচনীয়। এ অবস্থায় তাদের শীতবস্ত্রসহ জরুরী সহায়তা প্রয়োজন।

তিনি আজ রাজধানীতে ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী পূর্ব শাখার উদ্যোগে পথ শিশুদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। মহানগরী সভাপতি এস আর মিঠুর সভাপতিত্বে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহানগরী সেক্রেটারি তোফাজ্জল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রহমানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

শিবির সভাপতি বলেন, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন স্থানে শীতের তীব্রতা ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। গত কয়েক দিনে দেশে সর্বনিন্ম তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে। দেশে বিভিন্ন স্থান ঘনকুয়াশায় ঢেকে গেছে। শীতজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। স্বাভাবিক কাজ কর্ম বিঘিœত হচ্ছে। ঘন কুয়াশা, শৈতপ্রবাহ ও কনকনে ঠান্ডায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় অসহায়, দরিদ্র, ভাসমান, ছিন্নমূল মানুষ ও পথশিশুরা চরম দূর্ভোগে পড়েছে। তারা অকল্পনীয় মানবেতর জীবন যাপন করছে। এই দূর্দশার কথা ফলাও করে প্রচার হলেও তাদের সহায়তায় এখন পর্যন্ত সরকারের পক্ষ থেকে কোন তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। সেইভাবে এগিয়ে আসছেনা বিত্তবানরাও। এভাবে চলতে থাকলে অসহায় মানুষের বিপর্যস্ত অবস্থা আরো শোচনীয় হতে পারে। যা কোন ভাবেই কাম্যনয়। সরকারের ভাষ্য মতেই, প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবেলায় সরকারের পর্যাপ্ত সক্ষমতা ও প্রস্তুতি রয়েছে। এর পরও শীতে বিপর্যস্ত মানুষকে সহায়তা করা হচ্ছে না। অবিলম্বে শীতজনিত রোগের প্রাদুর্ভাব থেকে রক্ষা পেতে সু-চিকিৎসা ও ওষুধপথ্য এবং শীতের দূর্ভোগ লাঘবে সরকারী-বেসরকারী কার্যকর উদ্যোগ দরকার। জাতি-ধর্ম-বর্ণ দলমত নির্বিশেষে বিত্তবানদের শীতার্ত মানুষদের পাশে দাঁড়ানো অবশ্যই প্রয়োজন। সরকারকে শীতে কষ্টে থাকা হতদরিদ্র মানুষকে সহায়তায় জরুরী ভিত্তিতে বিশেষ কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে। দ্রুত পদক্ষেপ নিলে এ কষ্ট সহজেই লাঘব করা সম্ভব।

তিনি বলেন, মানবিক দিক থেকেই বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের কর্তব্য। শীতার্ত মানুষের প্রতি সমাজের সামর্থ্যবান ও বিত্তশালীদের সাহায্য ও সহানুভূতির হাত সম্প্রসারিত করা প্রয়োজন। ছাত্রশিবির প্রতিবছরই শীতার্তদের সহায়তায় বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করে থাকে। এ বছরও শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। শুধু নিজেরাই নয় বরং সবাইকে শীতার্তদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য উদ্বুদ্ধ করে আসছে ছাত্রশিবির। চলমান শীতার্ত মানুষকে শীত থেকে বাঁচাতে দেশের সরকার, সামর্থবান, বিত্তশালীসহ বিভিন্ন সংগঠনকে এগিয়ে আসার জন্য আমরা আহবান জানাচ্ছি। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Comments

comments