ঢাবিতে শিক্ষকের তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে আপত্তিকর অবস্থায় শিক্ষিকা উদ্ধার

ছবি : প্রতীকী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের এক শিক্ষকের কক্ষ থেকে আপত্তিকর অবস্থায় ঐ শিক্ষক ও এক শিক্ষিকাকে উদ্ধার করেছে প্রশাসন। আজ শনিবার বিকেলে ওই দু’জনকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করা হয়। ওই শিক্ষিকা অ্যাডুকেশনাল অ্যান্ড কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগের প্রভাষক উম্মে কাউসার লতা। তিনি কলাভবনের ৩০৪৯ নম্বর কক্ষে তালাবদ্ধ অবস্থায় ছিলেন। কক্ষটি মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আকিব-উল-হকের জন্য বরাদ্দ দেওয়া।

ঘটনার একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, শনিবার বিকেলে কলা ভবনের একটি কক্ষ থেকে এ দুই কলিগকে আটক করা হয়। দুইজনের অবস্থানের খবর পেয়ে সেখানে দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে আটক করেন আকিবের স্ত্রী। এ সময় আকিব তার স্ত্রীকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে গেলেও লতাকে রুমে আটকে রাখা হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর টিম তালা ভেঙে লতাকে রুম থেকে উদ্ধার করে।

আকিবের স্ত্রী অভিযোগ করেন, এর আগেও আকিব দেশে এবং দেশের বাহিরে লতাকে নিয়ে ঘুরতে যেতেন। এ বিষয়টি সম্পর্কে বিভাগের অনেক শিক্ষক অবগত আছেন।

এ বিষয়ে মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নাসরীন ওয়াদুদ সাংবাদিকদের বলেন, আমরা দীর্ঘদিন ধরে আকিবকে বিষয়টি বুঝিয়েছি। তিনি যেন ওই শিক্ষিকা থেকে নিজেকে ফিরিয়ে নেন। কারণ তার একটি সন্তানও রয়েছে।

এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রব্বানি বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি সম্পূর্ণ অবগত নই, তবে শুনেছি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রয়োজনীয় খোঁজ খবর নিয়ে পরবর্তীতে ব্যবস্থা নেবে।

উল্লেখ্য, গত ৫ আগস্ট একই রুমে তাদেরকে আপত্তিকর অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল। সেসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টি সমাধানের জন্য সিঅ্যান্ডি (কারিকুলাম অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট কমিটি) গঠিত হয়েছিল।

Comments

comments