নিউইয়র্ক আগুন: চুলা নিয়ে খেলছিল এক শিশু

দমকল বাহিনী বলছে অন্তত ২০জনকে সে বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে

নিউ ইয়র্কের দমকল বাহিনী প্রধান ড্যানিয়েল নিগ্রো বলেছেন, মনে হচ্ছে এক শিশু তাদের রান্নাঘরে জ্বলন্ত চুলা নিয়ে খেলতে গিয়ে গত আটাশ বছরে শহরের সবচেয়ে ভয়াবহ আগুন শুরু করেছিল।

তিনি বলেন আগুন খুব দ্রুত সিঁড়ি ঘর দিয়ে উপরে উঠে যায়, যার ফলে ভবনের বাসিন্দারা খুব কম সময় পেয়েছিল।

শহরের ব্রঙ্কস্এলাকার এই আগুনে বারো জন মারা যায়, যাদের মধ্যে সাতটি শিশু।

দমকল বাহিনীর প্রধান ড্রানিয়েল নিগ্রো বলেন, যে শিশুর কারনে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়েছে তাঁর বয়স তিন বছর।

আগুনের সূত্রপাত হবার সাথে সাথে শিশুটির মা তার দুই সন্তান নিয়ে দ্রুত বাসা থেকে বেরিয়ে যান।এ সময় তিনি দরজা খোলা রেখে যান।

ফলে সে বাসা থেকে আগুন বেরিয়ে সিড়িতে ছড়িয়ে পড়ে।

দমকল বাহিনীর প্রধান বলেন, সিড়ির জায়গা একটি আগুনের চিমনি হিসেবে কাজ করেছে এবং এর মাধ্যমে আগুন দ্রুত উপরের দিকে ছড়িয়েছে।

যখন আগুনের সূত্রপাত হয় তখন তখন শিশুটির মা জানতো না। চিৎকারের ফলে তিনি আগুন লাগার ঘটনা জানতে পারেন।

তখন তিনি তার দুই বছর এবং তিন বছরের দুই সন্তান নিয়ে দ্রুত বেরিয়ে যান। আগুন এতো দ্রুত উপরের দিকে ছড়িয়ে পড়ে যে বাসিন্দারা বুঝে উঠতে পারেনি।

তারা নিচে নামতে পারেনি। যারা নামার চেষ্টা করেছে তাদের কয়েজন সেখানেই পড়ে মারা গেছে।

নিহতদের নাম এখনো প্রকাশ করেনি কর্তৃপক্ষ। আগুন নেভানোর জন্য ১৭০জন দমকল কর্মী কাজ করেছে।

আমেরিকার স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, দুজন শিশুকে জড়িয়ে থাকা এক নারীর মৃতদেহ পাওয়া গেছে।

দেখে মনে হচ্ছে তিনি শিশুসহ নিজেকে বাঁচাতে বাথটাবে আশ্রয় নিয়েছিলেন।

অগ্নিকান্ড থেকে যারা বেঁচে গেছেন তাদের অনেকেই পায়ে কোন জুতা কিংবা গরম কাপড় সাথে আনতে পারেন নি।

তীব্র শীতের মধ্যে তারা রাস্তায় নেমে আসেন। রাস্তায় আসা বাসিন্দাদের শীত নিবারণের জন্য কম্বল দিয়ে সহায়তা করেছে রেডক্রস।

Comments

comments