নাটোরে যুবককে বিবস্ত্র করে ছাত্রলীগ নেতার নির্যাতন!

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় কামরুল ইসলাম নামে এক যুবককে বিবস্ত্র করে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে এক ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে।
সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার পেড়াবাড়িয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাগাতিপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আলিফ মাহমুদকে বিভিন্ন সময় টাকার বিনিময়ে মাদক এনে দিতো লালপুর উপজেলার চকশোভপুর গ্রামের ওমর মন্ডলের ছেলে কামরুল ইসলাম। সম্প্রতি তাদের দুজনের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটলে কামরুল মাদক সরবরাহ বন্ধ করে দেয়।

এরই জেরে সোমবার সন্ধ্যায় কামরুলকে নিজের অফিসে ডেকে আনে আলিফ। এ সময় পুনরায় সে মাদক সরবরাহ করার প্রস্তাব দিলে কামরুল তাতে অস্বীকৃতি জানায়। এসময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে কামরুলকে বিবস্ত্র করে দিগম্বর করে পেটাতে থাকে ছাত্রলীগ নেতা আলিফ। কামরুল নিজেকে রক্ষা করতে বিবস্ত্র অবস্থায় চিৎকার করে ছুটে বাইরে বেরিয়ে আসে। এই দৃশ্য দেখে আশেপাশের লোকজন একটা গেঞ্জি কেটে পরিয়ে তার লজ্জাস্থান ঢেকে দেয়।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা আলিফ মাহমুদের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সিগারেট কেনার ৫০০ টাকা চুরি করায় কামরুলের সাথে সামান্য ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। পরে বিষয়টা মিটমাট হয়েছে। বিবস্ত্র করার মতো ঘটনা ঘটেনি। ঘটনাটি স্থানীয়দের কাছ থেকে শুনে লালপুর বাগাতিপাড়া আসনের সাংসদ এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ ঘটনাস্থালে ছুটে আসেন। অভিযোগের সত্যতা পেয়ে তাৎক্ষনাৎ তিনি আলিফ মাহমুদকে পদত্যাগ করার নির্দেশ দেন।

নাটোর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমস জানান, স্থানীয় সাংসদের নির্দেশে বাগাতিপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদত্যাগ করেছেন শুনেছি। আমরাও সাংগঠনিকভাবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো।

Comments

comments