কিং অব বার্নাব্যুর আরেক রেকর্ড

এল ক্লাসিকো মানেই একসঙ্গে মাঠে দৌড়াচ্ছে ১০টি ব্যালন ডি’অর সঙ্গে বাড়তি লড়াই, বাড়তি উত্তেজনা, বাড়তি রোমাঞ্চ। হৃদপিণ্ডের ওপর বাড়তি চাপ। মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে কোনো কিছুরই কমতি ছিল না। চারটি হলুদ কার্ড ও ১টি লাল কার্ড সেটারই চিহ্ন বহন করছে। তবে কম ছিল গোল। কিন্তু দিন শেষে জয়জয়কার বার্সারই।

বার্সেলোনার যিশু কিংবা কিং অব বার্নাব্যু। তিনি আর কেউ নন। লিওনেল মেসি। তিনি গোল করেন, গোল করান। তার বাঁ পা হঠাৎ কথা বলে ওঠে। সেই পায়ের হদিশ পান না কেউ। মেসি জ্বলে উঠলে রোনালদোও নিভে যান। ঠিক তেমনই হলো শনিবারের ক্লাসিকোতে। এদিনের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বী মেসির ছায়ায় ঢাকাই থাকলেন রোনালদো।

কদিন আগে পঞ্চমবারের মতো ব্যালন ডি’অর জয়ের পর নিজেই নিজেকে ইতিহাসের সেরা ফুটবলার হিসেবে দাবি করেছেন। রোনালদোর সামনে শনিবার সুযোগ ছিল নিজের সেই দাবি প্রমাণের। সর্বকালের না হোক, অন্তত মেসির সঙ্গে তুলনায় নিজেকে সেরা প্রমাণের সুযোগ ছিল।

এল ক্লাসিকোর ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছেন আগেই। এবার রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে আরেকটি রেকর্ড গড়লেন লিওনেল মেসি। লা লিগার ইতিহাসে রিয়ালের জালে যে কারোর চেয়ে বেশি গোল করেছেন বার্সেলোনার এই ফরোয়ার্ড।

লা লিগায় রিয়ালের বিপক্ষে মেসির গোল হলো ১৭টি। আর সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে রিয়ালের বিপক্ষে বার্সেলোনা তারকার গোল ২৫টি।

এদিন আরেকটি মাইলফলকও ছুঁয়েছেন মেসি। ম্যাচের যোগ করা সময়ে তার পাস থেকে বার্সার তৃতীয় গোলটা করেন অ্যালেক্স ভিদাল। বার্সার হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এটি মেসির ২০০তম ‘অ্যাসিস্ট’।

এই মৌসুমটা মেসির দারুণ কাটছে। লা লিগায় ১৭ ম্যাচে করেছেন ১৪ গোল। আর সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১৫ ম্যাচে গোল ১৮টি।

Comments

comments