প্রতিশোধ নেয়ার সময় এসেছে : রিজভী

সরকারের প্রতি হুঁশিয়ারি দিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, প্রতিশোধ নেওয়ার সময় এসেছে।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনি অন্যায় ও অপকর্ম করে ভাবছেন, পার পেয়ে যাবেন। আপনি পার পাবেন না। পার পেতে পারেন না। এখন প্রতিশোধ নেওয়ার সময় এসেছে। প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য তৈরী হচ্ছে, এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তর। সমস্ত কিছুর হিসাব আপনাদের এক দিন দিতে হবে।

আজ শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দৈনিক আমার দেশ পরিবার আয়োজিত এক প্রতিবাদী মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

‘আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার ও পত্রিকা খুলে দেওয়ার দাবি’ উপলক্ষে এই মানববন্ধনের রিজভী বলেন, মিথ্যা কথা বলার জন্য আওয়ামী লীগ একটি উন্নত মানের প্রতিষ্ঠান। সেখান সেঞ্চুরি হয় নারী নির্যাতন ও টেন্ডারবাজি করে। আর সেই প্রতিষ্ঠানের যিনি হেড মাস্টার, তিনি তো বেগম জিয়ার নামে বলবেন, তার বাইয়ে এই আছে, সেই আছে। তাহলে প্রমান কই- প্রশ্ন রাখেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন,আপনি মিথ্যা ও বানোয়াট একটি মামলা দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রীকে সপ্তাহে দুই-তিন দিন আদালতে আপনি হাজিরা দিততে বাধ্য করছেন। আপনার আইন মন্ত্রনালয় থেকে কোন কর্মকর্তার ও কার নির্দেশ আদালতে যায় সেগুলোও আমরা জানি। আমরা সব কিছুই লিপিবদ্ধ করে রাখছি। আপনাদের সব অপকর্মের প্রতিটি অক্ষর লিপিবদ্ধ থাকছে। রাষ্ট্রক্ষমতা দখলে করে আপনি যে একের পর এক অপকর্ম করছেন, এই অপকর্ম আর হতে দেওয়া যাবে না।

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কি হয়েছে তা জনগণ জানে না- এমন প্রশ্ন রেখে রুহুল কবির রিজভী বলেন, সেখানে কি হয়েছে, আমরা জানি না? আমরা জানি। গণমাধ্যমে সব কিছু এসেছে। এরপরও মিথ্যা প্রচার করে সব ঢেকে রাখবেন- সরকারকে বলেন তিনি।

জাতীয় প্রসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ, এম আব্দুল্লাহ, এম এ আজিজ, জাহিদ চৌধুরী, কবি আবদুল হাই শিকদার, কাদের গণি চৌধুরী, শহীদুল ইসলাম, বিএনপি নেতা শামীমুর রহমান শামীম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Comments

comments