মাদারীপুরে ঘটনাস্থলে বসেই টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার ভাগ করে নিলো ডাকাতরা

মাদারীপুরে প্রবাসী বাড়িতে ডাকাতির পর ঘরে বসেই ডাকাতরা টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার ভাগ করে নেয় বলে অভিযোগ করা হয়েছে। বুধবার গভীর রাতে জেলার ধুরাইলের চাছার গ্রামে প্রবাসী হাফিজুল মুন্সীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়, গ্রিস প্রবাসী হাফিজুল মুন্সী কিছুদিন আগে দেশে ফিরে একটি পাকা ঘর নির্মাণ শুরু করেন। নতুন ঘরের অধিকাংশ কাজ শেষ হলেও দরজা-জানালার কাজ লাগানোর আগেই তারা সেখানে থাকা শুরু করেন। গতকাল বুধবার গভীর রাতে ১২ থেকে ১৩ জনের একদল ডাকাত ওই ঘরের ঢুকে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে ফেলে। এরপর ঘরে থাকা নগদ ৪ লাখ টাকা, দেড় ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার ও ৫টি দামি মোবাইল সেটসহ অর্ধ লক্ষাধিক টাকার বিদেশি প্রসাধনী লুট করে। এ সময় বাঁধা দিতে গেলে ডাকাতের মারধরে গৃহকর্তা হাফিজুল মুন্সী ও তার ছোট মেয়ে আহত হয়।

হাফিজুল মুন্সী জানান, মুখোশধারী ডাকাতরা সবাইকে একটি রুমের মধ্যে জিম্মি করে বসিয়ে রেখে তাদের সামনেই টাকা-মোবাইল-স্বর্ণালংকার, এমনকি বিদেশি প্রসাধনীও নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেয়।

মাদারীপুর জেলা পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন কুমার দেব জানান, ঘরের জানালা দরজা না থাকায় তারা সহজেই ঢুকে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। শ্রীনদী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। ক্ষতিগ্রস্তরা ডাকাতির মামলা করলে সেই অনুযায়ী মামলা নেওয়া হবে।

Comments

comments