মিয়ানমারে রয়টার্সের ২ সাংবাদিক গ্রেপ্তার

মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন থেকে রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কো ওয়া লোন এবং কায়াও সোয়ে ও নামের রয়টার্সের ওই দুই সাংবাদিককে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইয়াঙ্গুনের উপকন্ঠে গ্রেপ্তার করা হয়। বুধবার এই তথ্যই প্রকাশ করেছে মিয়ানমার সরকার। খবর বিবিসি, রয়টার্স।

এ ব্যাপারে দেশটির তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা ভঙ্গের দায়ে দুই সাংবাদিকের সঙ্গে এক পুলিশ কর্মকর্তাকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এদিকে রয়টার্স জানায়, তাদের দুই রিপোর্টারকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ডিনারের কথা বলে ডেকে নিয়ে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

সংবাদ সংস্থাটির এডিটর ইন চিফ স্টেফেন জে.অ্যালডার এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করায় তাদের গ্রেপ্তার করেছে দেশটির সরকার। এটা স্বাধীন সাংবাদিকতার উপর নগ্ন হস্তক্ষেপ।

এদিকে স্থানীয় কয়েকটি খবরে বলা হচ্ছে, ওই দুই সাংবাদিকের কাছে সামরিক প্রতিবেদন এবং উত্তরাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যের একটি মানচিত্র পাওয়ার পর তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

দুই সাংবাদিককে ‘অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট’ এর আওতায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলা জানা গেছে। ১৯২৩ সালে প্রণিত ওই আইনের আওতায় আটক ব্যক্তি দোষি সাব্যস্ত হলে তার ১৪ বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে দেশটিতে।

ইয়াঙ্গুনে মার্কিন দূতাবাস এক বিবৃতিতে বলেছে, পুলিশের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পরে রয়টার্সের দুই সাংবাদিকের গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছে দূতাবাস। গণতন্ত্রের সফলতার জন্য সাংবাদিকদের স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেয়াটা জরুরি। আমরা সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি যেন সরকার গ্রেপ্তার হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে এবং এই সাংবাদিকদের সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে যোগাযোগ করার ব্যবস্থা করে।

Comments

comments