ছাত্রলীগ নেতার কাণ্ড!

ধর্ষণের মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়ে জেল থেকে বেরিয়েই বাদীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক ছাত্রলীগ নেতা। তিনি অভিযোগ করেন, ওই মামলার কারণে তার মানহানি হয়েছে।

মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতে তিনি বাদী হয়ে মামলা করেন। ওই নেতার নাম লায়ন পারভেজ। তিনি ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক। পরে মুখ্য বিচারিক হাকিম আতিকুল ইসলাম মামলাটি আদেশের জন্য বুধবার দিন নির্ধারণ করেন।

নথি থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালের ৩ এপ্রিল সাভার থানায় লায়ন পারভেজসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেন এক নারী। পরে লায়ন পারভেজ গ্রেপ্তার হলে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।গ্রেপ্তারের পর লায়ন পারভেজকে রিমান্ডে পাঠান আদালত।

পরে সাভার থানা পুলিশ তদন্ত করে লায়ন পারভেজসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এ অভিযোগপত্র আসার পর ঢাকার ১ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেসমিন আরা বেগম আসামি লায়নসহ অপর আসামিদের বিরুদ্ধে মামলার কোনো উপাদান না পাওয়ায় অব্যাহতির আদেশ দেন। চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে ওই মামলা থেকে অব্যাহতি পান লায়ন পারভেজ।

এ ব্যাপারে ছাত্রলীগ নেতা পারভেজ বলেন, আমি সম্পূর্ণভাবে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। বিনা অপরাধে আমাকে জেল খাটতে হয়েছে। এতে আমার সুনাম ক্ষুণ্ণ হয়েছে।

Comments

comments