কোহলির বেতন ১২ কোটি রুপি

কয়েক বছর ধরেই বিশ্বের ধনী বোর্ডের শীর্ষ স্থানটি দখল করে আছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। তবে সবচেয়ে ধনী বোর্ড হলে যে অনুপাতে বেতন পাওয়ার কথা, তা পেতেন না দেশটির ক্রিকেটাররা। এবার বিরাট কোহলি ও তার সতীর্থদের ভাগ্যের চাকা ঘুরতে যাচ্ছে। এক সপ্তাহের ব্যবধানে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেটার বনে যাচ্ছেন তারা! সেটি না হলেও অন্তত বেতনের দিক দিয়ে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড ক্রিকেটারদের ধরে ফেলছেন বিরাটরা।

বিজনেস ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনোমিক টাইমস এক প্রতিবেদনে এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে।

গত সপ্তাহে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত নিয়োজিত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্সের (সিওএ) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বিরাট কোহলি, এমএস ধোনি ও রবি শাস্ত্রী। ওই সময় নিজেদের বেতন বাড়ানোর দাবি জানান দেশটির ক্রিকেটের তিন প্রাণ। তাদের প্রস্তাবে সেদিন ইতিবাচক সাড়া দেয় কমিটি। এবার তা আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে!

বর্তমানে ক্রিকেটারদের তিনটি গ্রেডে ভাগ করে বেতন দেয় বিসিসিআই। গ্রেড ‘এ’তে থাকা ক্রিকেটাররা (বিরাট, পূজারা, অশ্বিন) পেতেন বার্ষিক দুই কোটি রুপি। কমিটির সুপারিশে তাদের বেতন ১২ কোটি রুপিতে উত্তীর্ণ করছে বোর্ড।

গ্রেড ‘বি’র ক্রিকেটাররা পেতেন এক কোটি রুপি করে। এবার তাদের বেতন বেড়ে হচ্ছে আট কোটি রুপি। আর গ্রেড ‘সি’ অন্তর্ভুক্ত ক্রিকেটাররা পেতেন ৫০ লাখ রুপি করে। সেটিও বাড়ছে কয়েকগুণ। তারা পেতে যাচ্ছেন চার কোটি রুপি করে।

সিওএ’র বক্তব্য, অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট বার্ষিক বেতন পান ১২ কোটি রুপির কাছাকাছি। সেখানে বিরাট কোহলি পান দুই কোটি। এটি একরকম বৈষম্যের পর্যায়ে পড়ে। তাদের সঙ্গে এই ফারাকটা কমানো দরকার।

শোনা যাচ্ছে, বিরাটদের দাবি-দাওয়া মেনে নিয়েছে সিওএ ও বোর্ড। সবকিছু চূড়ান্ত হয়ে গেছে। এখন শুধু আনুষ্ঠানিকতার পালা।

Comments

comments