দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বেড়েছে ১০০ গুণ

দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৮ কোটি

২০০৮ সালে দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল মাত্র আট লাখ। সেখান থেকে এ সংখ্যা পৌঁছেছে আট কোটিতে। সে হিসেবে গেলো নয় বছরে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বেড়েছে ১০০ গুণ। জানালেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী।

তিনি বলেন, সরকার একটি সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সহজ যোগাযোগ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণে দেশকে একটি ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। বিগত নয় বছরে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা একশ গুণ বেড়েছে, যা ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে সরকারের লক্ষ্য অর্জনে একটি মাইলফলক হিসেবে দেখা যেতে পারে।

মুখ্য সচিব বলেন, এ উদ্যোগের আওতায় ইন্টারনেট সেবাসহ বিভিন্ন সেবা সাধারণ মানুষের নাগালে পৌঁছে যাচ্ছে এবং তারা ব্যবসাসহ যেকোনো উদ্দেশ্যে সহজে সারা বিশ্বে একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছে।

সরকারের আইসিটি বিভাগের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম আবু নাসের বলেন, সরকার ২০২১ সাল নাগাদ দেশব্যাপী শতভাগ ইন্টারনেট ব্যবহার নিশ্চিত করার পরিকল্পনা নিয়েছে।

তিনি বলেন, এছাড়া সরকার ২০২১ সাল নাগাদ ৫০ শতাংশ ব্রডব্যান্ড সংযোগ নিশ্চিত করবে। এ লক্ষ্যে সরকার ইনফো গভর্নমেন্ট ফেইজ-৩ প্রকল্পের আওতায় দেশের দুই হাজার ছয়শ’ ইউনিয়নে উচ্চ গতিসম্পন্ন ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা সরবরাহ করবে।

আবু নাসের বলেন, সরকার অধিক সংখ্যক জনগণের জন্য উচ্চ গতির ইন্টারনেট সেবা সরবরাহ করতে এবং গ্রামীণ এলাকায় সরকারের ই-সেবা বাড়াতে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ উদ্যোগের অধীনে এ পর্যন্ত ১৮ হাজার ১৩২টি সরকারি অফিস ইতোমধ্যে সরকারের ইন্টারনেট সেবার আওতায় আনা হয়েছে। এছাড়া প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির ১৭টি বই ইন্টারঅ্যাক্টিভ ডিজিটাল কন্টেন্টে রূপান্তর করা হয়েছে।

আবু নাসের বলেন, সরকার আইসিটি খাতে মানবসম্পদ উন্নয়নে দেশজুড়ে ২৮টি হাইটেক পার্ক স্থাপনের কাজ করছে। এসব পার্ক স্থাপনর কাজ সাফল্যের সঙ্গে সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে দেশে বেকারত্ব সমস্যা বহুলাংশে কমে যাবে।

Comments

comments