যৌতুকের মামলায় অব্যাহতি পেলেন আরাফাত সানি

যৌতুকের মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও তাঁর মা নার্গিস সুলতানা অব্যাহতি পেয়েছেন। স্ত্রী দাবি করা এক তরুণীর করা যৌতুকের মামলার সত্যতা না পেয়ে গত আগস্ট মাসে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয় মোহাম্মদপুর থানার পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৪-এর বিচারক তাবাসসুম ইসলাম পুলিশের ওই চূড়ান্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে তাঁদের মামলা থেকে অব্যাহতির আদেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ইয়াহিয়া প্রথম আলোকে বলেন, ওই তরুণী আরাফাত সানি ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে যৌতুকের যে অভিযোগ আনেন, তদন্ত করে দেখা গেছে, অভিযোগ সত্য নয়। যে কারণে দুজন আসামিকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সুপারিশ করেন।

তবে ইয়াহিয়া জানান, আরাফাত সানির বিরুদ্ধে ওই তরুণীর করা তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনের মামলার ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে।

নথিপত্রের তথ্য বলছে, চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি আরাফাত সানি ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে যৌতুকের মামলা করেন ওই তরুণী। মামলায় ওই তরুণী অভিযোগ করেন, ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর এই নারীর সঙ্গে আরাফাত সানির বিয়ে হয়। দেনমোহর ছিল পাঁচ লাখ টাকা। বিয়ের পর মিরপুরের একটি বাসায় তাঁরা সংসার শুরু করেন। কিন্তু ছয় মাস পর আরাফাত সানির মা নারগিস আক্তারের পরামর্শে সানি ওই নারীর কাছে ২০১৫ সালের ১৫ জুলাই ২০ লাখ টাকা দাবি করেন। তখন ওই টাকা না দিলে তাঁকে সংসার করতে দেবেন না বলে হুমকি দেন তাঁর মা নারগিস আক্তার।

স্ত্রী দাবি করা তরুণীর করা তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনের মামলায় চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে আরাফাত সানি গ্রেপ্তার হন। পরে তিনি আদালত থেকে জামিনে ছাড়া পান।

Comments

comments