ভূমিমন্ত্রীর ছেলের নেতৃত্বে ৪ সাংবাদিককে মারধর, ক্যামেরা ভাঙচুর

পাবনার ঈশ্বরদীতে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমাল এবং তার ক্যাডার বাহিনী পিটিয়ে আহত করেছে চার টিভি সাংবাদিককে। আহতদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে এই ঘটনা ঘটে। এ সময় তারা ল্যাপটপ, মটর সাইকেল ও ক্যামেরা ভাংচুর করেছে।

আহতরা হলেন সময় টিভি ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের পাবনা প্রতিনিধি সৈকত আফরোজ আসাদ, এটিএন নিউজের পাবনা প্রতিনিধি রিজভী রাইসুল জয়, ডিবিসি নিউজের পাবনা প্রতিনিধি পার্থ হাসান ও ক্যামেরা পার্সন মিলন হোসেন।

আহত সাংবাদিকরা জানান, বুধবার পাবনা শহর থেকে একদল সাংবাদিক প্রধানমন্ত্রীর আগমনের সংবাদ সংগ্রহের জন্য ঈশ্বরদী যান। বিকেল ৪টার দিকে ঈশ্বরদী এলাকায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সম্পাদক এডভোকেট রবিউল আলম বুদুর প্রচার গাড়িতে হামলা ও ভাংচুর করে ভুমিমন্ত্রীর ছেলে তমাল ও তার অনুসারী যুবলীগের ক্যাডার বাহিনী। এ সময় ভাংচুর ও হামলা দৃশ্য ভিডিও ক্যামেরা ধারণ করার সময় ক্যাডাররা সাংবাদিকদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। পরে তাদের আহতাবস্থায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পাবনা পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম আহত সাংবাদিকদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে দেখতে গিয়ে জানান, অপরাধী যেই হোক তাকে আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

এঘটনা শোনার পর পাবনায় কর্তব্যরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকেরা তাদের দেখতে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ছুটে যান। তারা এ সয় বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। তাৎক্ষণিক তারা পাবনা শহরে বিক্ষোভ মিছিল এবং ট্রাফিক মোড়ে এক প্রতিবাদ সমাবেশ করে তিন দিনের কর্মসূচী ঘোষণা করেন।

প্রধানমন্ত্রীর আগমনের আগেই এই ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার, কালোব্যাজ ধারণ, হামলার সুষ্ঠ বিচার না হওয়া পর্যন্ত ভূমিমন্ত্রী ডিলুর সকল সংবাদ বয়কটের ঘোষণা দিয়েছেন সাংবাদিকেরা।

Comments

comments