রাবি শিক্ষক হত্যা মামলার আসামি অস্ত্রসহ গ্রেফতার

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষক একেএম শফিউল ইসলাম লিলন হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি আরিফুল ইসলাম ওরফে মানিককে পিস্তুল ও গুলিসহ আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাত ৮টার দিকে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার জয়পুর বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়।

পুঠিয়া থানার ওসি সায়েদুর রহমান ভুঁইয়া জানান, আরিফুল ইসলামের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগজিন ও পাঁচ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

আটক আরিফুল ইসলাম রাজশাহীর পবা উপজেলার কাটাখালি পৌর এলাকার মৃত আশরাফ আলীর ছেলে। তিনি কাটাখালি পৌরসভা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক। তার বড় ভাই আব্বাস আলী কাটাখালি পৌরসভার মেয়র। আরিফুল ইসলাম অধ্যাপক লিলন হত্যা মামলায় জামিনে আছেন।

ওসি সায়েদুর রহমান বলেন, আরিফুল অবৈধ অস্ত্র নিয়ে জয়পুর বাজারে অবস্থান করছেন এ ধরনের তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। এসময় তাকে আটক করে তল্লাশিকালে জ্যাকেটের পকেট থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি মেলে। ওসি জানান, আটকের পর তাকে থানায় নেয়া হয়েছে। কী কারণে সে অস্ত্রসহ জয়পুরে অবস্থান করছিলো- সে ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ১৫ নভেম্বর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. শফিউল ইসলাম লিলনকে চৌদ্দপায়া এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে নৃশংসভাবে খুন করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় মামলা হলে জেলা বিএনপির যুগ্মসম্পাদক আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল ও যুবদল নেতা আরিফুল ইসলাম মানিকসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় পুলিশ।

Comments

comments