সাতক্ষীরায় আ.লীগ নেতার খণ্ডিত লাশ উদ্ধার

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় সলেমান গাজী (৪০) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতার মস্তকবিহীন লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। সোমবার সকালে উপজেলার কৈখালী গ্রামের পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধের পাশ থেকে ওই নেতার মস্তক বিচ্ছিন্ন লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত সলেমান গাজী শোভনালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি ছিলেন। তিনি এলাকার ভূমিহীনদের একটি অংশের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। শোভনালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোনায়েম হোসেন জানান, রাতে সলেমান গাজী তার ভাগিনা আবু সালেক ও চাচাতো ভাই আবদুর রশীদের সঙ্গে ক্যারাম খেলে বাড়ি ফেরেন।

পরে রাত ৯টার দিকে তার মোবাইল ফোনে কল এলে তিনি ফের বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। এর পর সকালে বেড়িবাঁধের পাশে তার গলাকাট লাশ পাওয়া যায়। ইউপি সদস্য ফারুক হোসেন জানান, সলেমান গাজি ভূমিহীনদের একটি অংশের নেতৃত্ব দেন।

আরেক ভূমিহীন নেতা ওহাব পেয়াদার সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে এই হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে উল্লেখ করেন ফারুক। আশাশুনি থানার ওসি শাহিদুল ইসলাম শাহীন জানান, লাশটির মাথা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পাওয়া গেছে। তার ব্যবহৃত মোবাইলটি পাওয়া যায়নি। লাশের পাশে সিগারেটের প্যাকেট ও একটি গ্যাসলাইট ছিল।

ওসি জানান, নিহত আওয়ামী লীগ নেতার সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। ওসি আরও জানান, হত্যার কারণ এ মুহূর্তে নিশ্চিত করা যায়নি। তবে ভূমিহীনদের মধ্যে চলমান বিরোধের জেরে তিনি খুন হয়েছেন কিনা তা খতিয়ে দেখতে কাজ শুরু করছে পুলিশ।

Comments

comments