সিরাজগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলায় ছাত্রলীগের এক নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

রোববার বেলা ১২টার দিকে জেলা শহরের ইলিয়ট ব্রিজ সংলগ্ন জনতা ব্যাংকের পেছনে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় যুবলীগের এক নেতাসহ ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত আব্দুল মালেক (২৫) শহরের দত্তবাড়ি মহল্লার সানোয়ার হোসেনের ছেলে। তিনি পৌর ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত  কমিটির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।

পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন মালেককে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলালউদ্দিন জানান, দুপুর ১২টার দিকে সিরাজগঞ্জ জেলা শহরের ইলিয়ট ব্রিজ সংলগ্ন জনতা ব্যাংকের পেছনে হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়।

তিনি জানান, ছাত্রলীগ নেতা মালেকের বড় ভাই মুসার সঙ্গে পাওনা টাকা নিয়ে একই এলাকার খায়রুল, নজরুল ও সুমনের বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ চলাকালে মালেককে চায়নিজ কুড়াল দিয়ে কোপানো হয় এবং ছুরিকাঘাত কর হয়। কুড়ালের আঘাতে তার মাথার মগজ বেরিয়ে আসে। পরে সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি বলেন, টাকা-পয়সা লেনদেন সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় মালেক নিহত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিযোগে আট নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সহ-সম্পাদক নজরুল ইসলামসহ ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।

Comments

comments