জামায়াত আমিরের স্বাস্থ্যের অবনতি, মুক্তির দাবি নেতাদের

জামায়াতে ইসলামীর আমির মকবুল আহমাদের স্বাস্থ্যের অবনতি হচ্ছে। শুক্রবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে দলটির ভারপ্রাপ্ত আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান এ দাবি করেন। তাই সুচিকিৎসার প্রয়োজনে দ্রুত আমিরের মুক্তি চেয়েছে দলটি।

মকবুল আহমাদ ডায়াবেটিক, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ, মেরুদণ্ডের ব্যথাসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন জটিল রোগে ভুগছেন বলে জানানো হয় বিবৃতিতে। এ নিয়ে তার পরিবারের পক্ষ থেকে উৎকণ্ঠা প্রকাশ করা হয়েছে। তিনি নিয়মিতভাবে থেরাপি নিতেন। এখন সেই সুযোগ না থাকায় স্বাস্থ্যের মারাত্মক অবনতি হতে পারে বলে পরিবারে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

গত ৯ অক্টোবর গ্রেফতার হন মকবুল আহমাদ। এর পরদিন বিকালে আদালতে নেওয়া হয় তাকে। ভারপ্রাপ্ত আমির বলেছেন, ‘মকবুল আহমাদের বয়স প্রায় ৮০ বছর। মেরুদণ্ডের ব্যথার কারণে সোজা হয়ে বসতে ও ঘুমাতে পারেন না তিনি। ক্রমেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ১০ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের নামে হয়রানি করছে আমাদের আমিরকে। এ কারণে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।’

ভারপ্রাপ্ত আমিরের ভাষ্য— ‘যে কোনও নাগরিকের চিকিৎসার সুব্যবস্থা প্রাপ্তি তার সাংবিধানিক ও নাগরিক অধিকার। সেক্ষেত্রে মকবুল আহমাদের মতো একজন বয়োবৃদ্ধ অসুস্থ মানুষকে আটক করে ও রিমান্ডে নিয়ে সরকার তার মৌলিক মানবিক অধিকার লঙ্ঘন করেছে। চিকিৎসার যথাযথ ব্যবস্থা থেকে বঞ্চিত রেখে তার সাংবিধানিক অধিকারের প্রতি অবজ্ঞা প্রদর্শন করা হয়েছে।’

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

Comments

comments