যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে বাড়তি বাধার মুখে ১১ দেশের শরণার্থীরা

যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থী ও অভিবাসন নীতি শিথিল করা হলেও দেশটিতে প্রবেশে অতিরিক্ত বাধার মুখে পড়ছেন ১১ দেশের শরণার্থীরা।

ট্রাম্প প্রশাসনের কালো তালিকাভুক্ত এই ১১ দেশের বেশিরভাগই মুসলিম অধ্যুষিত।

মঙ্গলবার দেশটির অভিবাসন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওইসব দেশ থেকে আগতদের জন্য শরণার্থী ও অভিবাসন নীতি চালু হতে আরও কিছু সময় লাগবে।

রয়টার্স এক প্রতিবেদনে বলেছে, উদ্বাস্তু ও অভিবাসন বিষয়ে কড়াকড়ি শিথিল না করার পাশাপাশি ট্রাম্প প্রশাসন ওই সব দেশের শরণার্থীদের যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে একীভূত হওয়ার বিষয়টিতেও এখনও শিথিলতা আনেনি।

তবে কাগজপত্রের হিসাবমতো এসব বিষয়ে ট্রাম্প প্রশাসন শিথিলতা এনেছে বলে দাবি করা হয়।

নিষেধাজ্ঞার মধ্যে থাকা ১১ দেশের মধ্যে রয়েছে- মিসর, ইরান, ইরাক, লিবিয়া, মালি, নর্থ কোরিয়া, সোমালিয়া, সাউথ সুদান, সুদান, সিরিয়া, ইয়েমেন।

এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ফিলিস্তিনিদেরও উচ্চপর্যায়ের নিরাপত্তা স্ক্রিনিংয়ের (যাচাই) ভেতর দিয়ে আসতে হয়।

২০১৬ সাল থেকে ট্রাম্প প্রশাসন এসব দেশের বয়স্ক পুরুষদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করে।

তথ্যসূত্র: যুগান্তর

Comments

comments